১৩ বছরে বাংলাদেশ বদলে গেছে: প্রধানমন্ত্রী 
১৩ বছরে বাংলাদেশ বদলে গেছে: প্রধানমন্ত্রী 

সংগৃহীত ছবি

১৩ বছরে বাংলাদেশ বদলে গেছে: প্রধানমন্ত্রী 

অনলাইন ডেস্ক

আওয়ামী লীগ সরকার গত ১৩ বছর একটানা ক্ষমতায় রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমরা ক্ষমতায় আসার আগে যে ইশতেহার দিয়েছিলাম তা বাস্তবায়ন করেছি। আমরা ঘোষণা দিয়েছিলাম- বদলে যাবে বাংলাদেশ। গত ১৩ বছরে বাংলাদেশ বদলে গেছে। আমরা যে রূপকল্প ও প্রেক্ষিত পরিকল্পনা নিয়েছিলাম তা বাস্তবায়ন করতে সক্ষম হয়েছি।

’ 

রোববার (১৩ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন-বিজেএমইএ এর সপ্তাহব্যাপী আয়োজন মেড ইন বাংলাদেশ উইক এর উদ্বোঝনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ফলে পরিবর্তন আসবে আন্তর্জাতিক শ্রমবাজারে। এ কথা মাথায় রেখে মানব সম্পদকে আরও দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। ’ 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি খাতও আমরা উন্মুক্ত করে দিই।

কম্পিউটার শিক্ষার মাধ্যমে প্রযুক্তি শেখার বিষয়ে আমরা গুরুত্ব দিই। ’ তিনি বাংলাদেশের বিনিয়োগের চমৎকার সুযোগ রয়েছে জানিয়ে- এই সুযোগ গ্রহণ করতে বিদেশি ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমরা শিল্প কারখানা গড়ে তোলার পরিবেশ সৃষ্টি করে দিয়েছি। এখন বিশ্বের সেরা ১০ পরিবেশবান্ধব কারখানার মধ্যে ৯টা বাংলাদেশে। ’ তিনি জানান, ২০২১-২২ অর্থবছরে আমাদের পোশাক পণ্য রপ্তানি আয় ৫২.০৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।  

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘করোনায় মধ্যে পোশাক খাতের সংকট সামাধানে আমরা প্রণদনা দিই। বিশেষ প্রণদনা দিয়ে মহামারি পরিস্থিতি মোকাবেলা করি। ’ তিনি পোশাক শ্রমিকদের সুবিধাগুলো দেখার জন্য মালিকদের নজর দেওয়ার আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিজিএমইএ ২০৩০ সাল নাগাদ ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের পোশাক রপ্তানির ঘোষণা দিয়েছে। এ লক্ষ্য অর্জনে সব ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে। ’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণই সাহসের উৎস। এখন মাথাহপিছু আয় ২ হাজার ৮২৪ মার্কিন ডালার। মাথাপিছু আয় বাড়ছে। আমাদের দেশের মধ্যে বাজার সৃষ্টি করতে হবে। মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বাড়াতে হবে। ’ 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মনে রাখতে হবে যারা শ্রম দেয় তারা এই বাংলাদেশেরই মানুষ। এখন থেকে আমাদের প্রস্তুতি নিতে হবে। আমাদের শ্রমিক, যারা শ্রম দেয় তাদের দিকে দৃষ্টি দিচ্ছি। যে শ্রম দেবে সে যেন সুন্দরভাবে কাজ করতে পারে, আরও শ্রম দিতে পারে সে পরিবেশটা দিতে হবে। ’

তিনি বলেন, ‘করোনা, বিশ্ব মন্দা, মূল্যস্ফীতি, যুদ্ধ, স্যাংশন, কাউন্টার স্যাংশনেরর কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নানা সমস্যার মুখোমুখী। এটা বন্ধ হোক, সহজভাবে সব দেশ ব্যবসা করতে পারে, আমরা সেটা চাই। ’

news24bd.tv/ইস্রাফিল