শ্যাম্পেইন দেখে উৎসবের মঞ্চ ছাড়লেন দুই ক্রিকেটার
শ্যাম্পেইন দেখে উৎসবের মঞ্চ ছাড়লেন দুই ক্রিকেটার

সংগৃহীত ছবি

শ্যাম্পেইন দেখে উৎসবের মঞ্চ ছাড়লেন দুই ক্রিকেটার

অনলাইন ডেস্ক

১৯৯২ সাল, মেলবোর্ন। ইংল্যান্ডকে উড়িয়ে বিশ্বকাপ ট্রফি উঁচিয়ে ধরে ইমরান খানের পাকিস্তান। ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি দেখতে গতকাল আবারও মেলবোর্নে হাজির পাকিস্তানের ক্রিকেট সমর্থকরা। না এবার আর হয়নি।

বারর আজমের দলের বিপক্ষে পূর্বপুরুষদের হারের প্রতিশোধ নিয়েছে জস বাটলারের ইংল্যান্ড। পাকিস্তানকে ফাইনালে হারিয়ে বিশ্ব সেরার মুকুট জয় করে নেয় ব্রিটিশরা।

দীর্ঘ এক যুগ পর দ্বিতীয়বারের মত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা নিজেদের করে নেয় ইংল্যান্ড। শিরোপা জয়ের পর স্বাভাবিকভাবেই বাঁধভাঙ্গা উল্লাসে মেতে উঠে ক্রিকেটাররা।

পাকিস্তানকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে এ শিরোপা অর্জন করে ইংল্যান্ড।  

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের পর শিরোপা হাতে পেয়ে মদের বোতল (শ্যাম্পেইন) নিয়ে উল্লাসে মাতে ক্রিকেটাররা। শ্যাম্পেইন ছিটিয়ে শিরোপা নিয়ে উদযাপন শুরু করে ইংলিশ ক্রিকেটাররা। তবে শ্যাম্পেইনের বোতল চ্যাম্পিয়ন মঞ্চে আসতেই দৌঁড়ে মঞ্চ ছাড়েন দুই মুসলিম ক্রিকেটার মঈন আলি ও আদিল রশিদ।  

ইসলাম ধর্মে মদ হারাম। ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধা, ভালোবাসা থেকেই শ্যাম্পেইন উদযাপন থেকে নিজেদের বিরত রাখেন ধর্মভীরু এই দুই ক্রিকেটার। সতীর্থরা যখন উল্লাসে মত্ত তখন চ্যাম্পিয়ন মঞ্চ ছেড়ে নিজেদের হারাম কাজ থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করেন।

এর আগে ২০১৯ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে দলের শ্যাম্পেইন উদযাপন থেকে নিজেদের সরিয়ে রাখেন মঈন এবং রশিদ।

news24bd.tv/আলী