তারুণ্যে বাজি সেনেগালের, বিশ্বকাপ জয়ের প্রস্তুতি সারতে চায় নেদারল্যান্ডস
তারুণ্যে বাজি সেনেগালের, বিশ্বকাপ জয়ের প্রস্তুতি সারতে চায় নেদারল্যান্ডস

সংগৃহীত ছবি

তারুণ্যে বাজি সেনেগালের, বিশ্বকাপ জয়ের প্রস্তুতি সারতে চায় নেদারল্যান্ডস

অনলাইন ডেস্ক

কাতার বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ সময় আজ রাত ১০টায় মাঠে নামবে নেদারল্যান্ডস-সেনেগাল। ম্যাচের আগেই চোটে বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গিয়েছে সেনেগাল সুপার স্টার সাদিও মানের। তবে ম্যাচে না থেকেও আছেন মানে। ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে তাকে নিয়েই ছিল সব প্রশ্ন।

তবে মানের না থাকাকে তরুণদের জন্য সুযোগ দেখছেন দলটির কোচ আলিউ সিসে। অন্যদিকে মানের না থাকার সুযোগ লুফে নিয়ে আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের প্রস্তুতি সারতে চায় নেদারল্যান্ডস।

কদিন আগেই দলকে আফ্রিকান চ্যাম্পিয়ন বানিয়েছেন সাদিও মানে। সবশেষ মৌসুমে লিভারপুলকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে নিয়ে গিয়েছেন।

তবে সম্প্রতি যোগ দিয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখে। ছিলেন দারুণ ছন্দে। দেশের হয়ে ৯২ ম্যাচে ৩৩ গোল রয়েছে তার। বিশ্বকাপের মহা-গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে এমন তারকার ছিটকে যাওয়া যে কারো জন্যই হতাশার। সেই সাথে আক্রমণে গতি কমা। ব্যাপারটি জানা আছে কোচ সিসের।

মানের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে সিসে বলেন, ‘প্রথমত, আমি ছেলেটির জন্য দুঃখিত। তারপরে জাতীয় দলের জন্য, তবে অবশ্যই এটি তার স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। অবশ্যই আমরা সেনেগালিজ দলের জন্য সাদিও মানের গুরুত্ব লুকিয়ে রাখব না। সে খুবই গুরুত্বপূর্ণ, একজন কোচ তার সেরা খেলোয়াড়দের ঘিরে তার দল গড়ে তোলেন। ’

মানের বাদ পড়াকে শক্তিতে রূপান্তরিত করতে পারেন ২০ বছর বয়সী তরুণ মুসা এনদিয়ায়েকে ও ২৩ বছর বয়সী ক্রেপিন দিয়াট্টা। তাদের ঘিরেই ডাচদের আটকানোর ছক কষছেন সিসে।

সিসে আরো জানান, ‘আমাদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের নিয়ে একটি দল রয়েছে, তরুণ খেলোয়াড়রা এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত। সাদিও মানে ছাড়া আমাদের আগেও ম্যাচ খেলতে হয়েছে। আমাদের বেশকিছু অসাধারণ তরুণ খেলোয়াড় রয়েছে। আমার বেঞ্চে অনেক গভীরতা রয়েছে তাই কেউ ক্লান্ত হয়ে পড়লে আমি ভাল সাবস করতে সক্ষম হব। ’

সাদিও মানেকে বেশ ভালো ভাবেই চিনেন এক সময়ের লিভারপুল সতীর্থ নেদারল্যান্ডস তারকা ভার্জিল ভ্যান ডাইক। প্রাক্তন সতীর্থের বিদায়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনিও। তবে বার্তা দিয়েছেন সেনেগালকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জয়ের রাস্তা সহজ করতে চায় তার দল।

তিনি বলেন, ‘আমি পরের দিন তাকে ফোন করেছিলাম এবং স্পষ্টতই আমি জানতে চেয়েছিলাম সে কেমন ছিল। অনেক গুজব বেরিয়েছিল। বন্ধু হিসেবে জানতে চেয়েছিলাম কেমন আছেন তিনি। এটা তার কাছে সবচেয়ে ভালো খবর ছিল না এবং দুর্ভাগ্যবশত সে এই টুর্নামেন্ট করতে পারবে না। তবে আশা করি আমরা এটি থেকেও কিছুটা উপকৃত হতে পারি। এই ম্যাচটি টুর্নামেন্টের বাকি অংশের জন্য সুর সেট করে দিবে। সেনেগাল আফ্রিকান চ্যাম্পিয়ন তাই তারা মোটেও সহজ প্রতিপক্ষ নয়।

news24bd.tv/আমিরুল