‘মেজর জিয়া’র পরিকল্পনায় আদালত থেকে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়
‘মেজর জিয়া’র পরিকল্পনায় আদালত থেকে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়

দুই জঙ্গি

‘মেজর জিয়া’র পরিকল্পনায় আদালত থেকে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়

অনলাইন ডেস্ক

নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সামরিক শাখার কমান্ডার সৈয়দ জিয়াউল হক ওরফে বরখাস্তকৃত মেজর জিয়ার পরিকল্পনায় আদালত থেকে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। পালাতে না পারা অন্য জঙ্গিরা জিজ্ঞাসাবাদে এ তথ্য জানিয়েছে। পরে পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।  

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রাঙ্গণ থেকে রোববার (২০ নভেম্বর) পুলিশের চোখে-মুখে পিপার স্প্রে করে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

একই ঘটনায় রাজধানীর কোতোয়ালি থানার করা মামলায় এ দিন রাতেই দশ আসামির ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।  

এর আগে এ দিন দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার জজ আদালত প্রাঙ্গণ থেকে আনসার আল ইসলামের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় তাদের সহযোগীরা। এই দুই জনই ২০১৫ সালে বিজ্ঞানমনস্ক লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় এবং জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত। ছিনিয়ে নেওয়া দুই জঙ্গির মধ্যে একজন মইনুল হাসান শামীম ওরফে সামির ওরফে ইমরান (২৪)।

সে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মাধবপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে। আর অপর জন আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব (৩৪)। সে লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ভেটশ্বর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে।

এ ঘটনায় রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর কোতোয়ালী থানায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করে। এমনকি পালিয়ে যাওয়াদের ধরিয়ে দিলে ২০ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঢাকাজুড়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা গ্রহণ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ঢাকার প্রতিটি প্রবেশ-বাহির পথে চেকপোস্ট বাড়িয়ে তল্লাশি বাড়াতে বলা হয়েছে।

news24bd.tv/ইস্রাফিল