পুলিশের মুখে পিপার স্প্রে করে ছিনিয়ে নেওয়া হয় জঙ্গিদের, তদন্তে সিটিটিসি
পুলিশের মুখে পিপার স্প্রে করে ছিনিয়ে নেওয়া হয় জঙ্গিদের, তদন্তে সিটিটিসি

সংগৃহীত ছবি

পুলিশের মুখে পিপার স্প্রে করে ছিনিয়ে নেওয়া হয় জঙ্গিদের, তদন্তে সিটিটিসি

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পুলিশের মুখে পিপার স্প্রে করে প্রকাশক দীপন হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়। মামলাটি তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটকে। সোমবার (২১ নভেম্বর) রাজধানীর কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুব হোসেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।  

মাহবুব হোসেন বলেন, ‘আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনের করা মামলাটি আমরা তদন্ত করতাম।

ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে এখন মামলাটি তদন্ত করবেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। আমরা তাদের মামলা ও রিমান্ডে যাওয়া আসামিদের বুঝিয়ে দিয়েছি। ’

ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রাঙ্গণ থেকে রোববার (২০ নভেম্বর) পুলিশের চোখে-মুখে পিপার স্প্রে করে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আরও পড়ুন...‘মেজর জিয়া’র পরিকল্পনায় আদালত থেকে দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়

একই ঘটনায় রাজধানীর কোতোয়ালি থানার করা মামলায় এ দিন রাতেই দশ আসামির ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

 

আসামিরা হলেন- শাহীন আলম ওরফে কামাল, শাহ আলম ওরফে সালাউদ্দিন, বি এম মজিবুর রহমান, সুমন হোসেন পাটোয়ারী, আরাফাত রহমান, খাইরুল ইসলাম ওরফে সিফাত, মোজাম্মেল হোসেন, শেখ আব্দুল্লাহ, আ. সবুর, রশিদুন্নবী ভূঁইয়া। আসামিরা আনসার আল ইসলামের সদস্য।

এর আগে এ দিন দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার জজ আদালত প্রাঙ্গণ থেকে আনসার আল ইসলামের মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই জঙ্গিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায় তাদের সহযোগীরা। এই দুই জনই ২০১৫ সালে বিজ্ঞানমনস্ক লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায় এবং জাগৃতি প্রকাশনীর স্বত্বাধিকারী ফয়সল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত। ছিনিয়ে নেওয়া দুই জঙ্গির মধ্যে একজন মইনুল হাসান শামীম ওরফে সামির ওরফে ইমরান (২৪)। সে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মাধবপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে। আর অপর জন আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব (৩৪)। সে লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার ভেটশ্বর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে।

এমনকি পালিয়ে যাওয়াদের ধরিয়ে দিলে ২০ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঢাকাজুড়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা গ্রহণ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ঢাকার প্রতিটি প্রবেশ-বাহির পথে চেকপোস্ট বাড়িয়ে তল্লাশি বাড়াতে বলা হয়েছে।

news24bd.tv/ইস্রাফিল