কুষ্টিয়ায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নার্সারি কর্মীর মৃত্যু
কুষ্টিয়ায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নার্সারি কর্মীর মৃত্যু

প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়ায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নার্সারি কর্মীর মৃত্যু

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার মিরপুরে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে এক নার্সারি কর্মীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে আজ সোমবার সকালে মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিহত ব্যক্তির নাম আবু তৈয়ব। তিনি গাছের চারা তৈরীর জন্য কলম বানানোর কাজ করতেন।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদুল আলম জানান, সোমবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে স্থানীয় সাংবাদিক আনোয়ার নিশি ফোন করে তাকে খবরটি জানান। এর কিছু পরে মিরপুর উপজেলার ফুলবাড়িয়া ইউনিয়নের শিমুলতলা মাঠে জিকে ক্যানেলের পাশে ঘাসের জমি থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতের ঘাড়ে ও মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের চিহ্ন আছে। মরদেহ থেকে অল্প দূরে জিকে ক্যানেলের উপরে একটি ছোট আকৃতির চাকু, টর্চলাইট ও মোবাইল ফোন পাওয়া যায়।

এগুলো সুন্দরভাবে সাজিয়ে রাখা ছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে বলে জানান ওসি।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি জানান, নিহত আবু তৈয়ব এর বয়স ৫২ থেকে ৫৫ বছরের মধ্যে। তিনি মিরপুরের অঞ্জনগাছি গ্রামে বসবাস করতেন। তার বাড়ি চট্টগ্রাম এলাকায়। এখানে ১১ বছর ধরে আছেন। কি কারণে তাকে কারা হত্যা করেছে তদন্ত করে জানানো হবে বলে জানান ওসি।