চীনে এখন রেকর্ড করোনা সংক্রমণ, আবারো বাড়ছে কড়াকড়ি
চীনে এখন রেকর্ড করোনা সংক্রমণ, আবারো বাড়ছে কড়াকড়ি

সংগৃহীত ছবি

চীনে এখন রেকর্ড করোনা সংক্রমণ, আবারো বাড়ছে কড়াকড়ি

অনলাইন ডেস্ক

সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়ি থাকা সত্বেও এই মূহুর্তে চীনে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। দেশটির সরকারি তথ্য বলছে, গত ২৩ নভেম্বর ৩১ হাজার ৫ শ’ ২৭টি নতুন কেস শনাক্ত হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কাল শুক্রবার থেকে ঝেংঝো শহরের ৬০ লাখ বাসিন্দাকে কোয়ারেন্টিন পালন করতে হবে। বেইজিংয়ের বেশকিছু জেলার স্কুল, শপিংমল ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বেইজিং।

খবর আল জাজিরার।

জানা গেছে, রাজধানী বেইজিং দক্ষিণাঞ্চলের বাণিজ্যিক শহর গুয়াংজুর বড় শহরগুলিতে করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। এর আগে এপ্রিলে একদিনে সর্বোচ্চ ২৮ হাজার সংক্রমণের রেকর্ড ছিলো চীনে। দেশটিতে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হতো নাগরিকদের।

বাধ্যতামূলক মাস্ক পরা, বাধ্যতামূলক করোনা টেস্ট-এমন কঠোর স্বাস্থ্যবিধির প্রতিবাদে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটে ওই সময়। এরপর স্বাস্থ্যবিধি কিছুটা শিথিল করে দেশটির কর্তৃপক্ষ। করোনা প্রত্যক্ষ সংস্পর্শে আসলে বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন ৭ দিনের পরিবর্তে ৫ দিন করা হয়। আর পরোক্ষ সংস্পর্শে কোয়ারেন্টিনের বাধ্যবাধকতা তুলে নেয়া হয়।  

চীনের এমন সিদ্ধান্তের পর আবার সেখানে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে আবারো কঠোর সিদ্ধান্তের দিকে যাচ্ছে দেশটি। ইতিমধ্যে কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দিয়েছে, শুক্রবার থেকে ঝেংঝো শহরের ৬০ লাখ বাসিন্দাকে কোয়ারেন্টিন পালন করতে হবে। বেইজিংয়ের বেশকিছু জেলায় স্কুল, শপিংমল ও রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বেইজিং।

করোনা নিয়ন্ত্রণে চীনের ‘জিরো কোভিড পলিসি’ অনেক জীবন রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে। তবে এতে দারিদ্রসীমার নিচে চলে গেছে দেশটির মধ্যবিত্ত ও নিম্মবিত্তের মানুষ।

news24bd.tv/আজিজ