রুশ ভাষায় কথা বলায় ইউক্রেনীয় মেয়রের জরিমানা
রুশ ভাষায় কথা বলায় ইউক্রেনীয় মেয়রের জরিমানা

খারকিভের মেয়র ইগর তেরেখভ

রুশ ভাষায় কথা বলায় ইউক্রেনীয় মেয়রের জরিমানা

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহৎ শহর খারকিভ। উত্তর-পূর্বাঞ্চলের এই শহরের মেয়র ইগর তেরেখভ। রুশ ভাষায় কথা বলায় জরিমানা গুনতে হচ্ছে এই মেয়রকে। খবর আরটির।

প্রতিবেদনে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন সম্প্রচার মাধ্যমটি জানায়, খারকিভের মেয়র একটি সরকারি টেলিভিশনে রুশ ভাষায় বক্তৃতা দিয়েছেন। এর জেরে জরিমানার মুখে পড়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে ইউক্রেনীয় সরকারের কমিশনার তারাস ক্রেমিন বলেন, ‘জরিমানা বাবদ মেয়র তেরেখভকে গুনতে হবে ৯২ মার্কিন ডলার। রাষ্ট্র ভাষা সুরক্ষার জন্য তাকে এই জরিমানা করা হয়েছে।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, খারকিভ শহরের বাসিন্দাদের উদ্দেশে দেওয়া বক্তব্যে মেয়র তেরেখভ রাষ্ট্রীয় ভাষা ব্যবহার করেননি। এটি প্রশাসনিক অপরাধ। ভাষা কমিশনার অফিস থেকে মেয়রের কার্যালয়কে একটি প্রশাসনিক সতর্কতাও দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে থাকা মেয়রের পেজগুলোতে ইউক্রেনীয় ভাষা ব্যবহার করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরটি বলছে, কমিশনারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করার জন্য তেরেখভের কাছে ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় রয়েছে। বক্তৃতার সময় মেয়র কোন ভাষায় ব্যবহার করেছেন তা নির্দিষ্ট করে জানায়নি ইউক্রেনীয় মিডিয়াগুলো। তবে তারা বলছে, স্থানীয়দের সঙ্গে আগে থেকেই রুশ ভাষায় কথা বলেন তেরেখভ।

ইউক্রেনের রাষ্ট্র ভাষা ব্যবহারের আইনটি পাস হয় ২০১৯ সালে। তৎকালীন প্রেসিডেন্ট পেট্রো পোরোশেঙ্কো নিজের ক্ষমতা শেষ হওয়ার মাত্র পাঁচ দিন আগে আইনটিতে স্বাক্ষর করেন। আইন অনুযায়ী, ইউক্রেনের সরকারি কর্মকর্তাদের তাদের দায়িত্ব পালনের সময় শুধুমাত্র ইউক্রেনীয় ভাষা ব্যবহার করতে হবে।

news24bd.tv/মামুন