ইমো হ্যাক করে টাকা হাতিয়ে নিতো তারা
ইমো হ্যাক করে টাকা হাতিয়ে নিতো তারা

ইমো হ্যাক করে টাকা হাতিয়ে নিতো তারা

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরের লালপুর থেকে মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ইমো হ্যাকিং চক্রের সাতজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৯টি মোবাইল ফোন, একটি ডিভিআর ডিভাইস, দুইটি ফেনসিডিল ও নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাতে লালপুরের বিলমাড়িয়া এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

তারা হলেন- রাজশাহী বাঘা উপজেলার খানপুর গ্রামের বেলাল মন্ডল, নাটোরের লালপুরের মোহরকয়া গ্রামের মেহেদী হাসান, মোহন সরকার, মো. রবি, মনিহারপুরের শিমুল আলী, ভাঙ্গাপাড়ার শাহ পরান সরকার ও নাগসোসা গ্রামের রুবেল মন্ডল।

নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন জানান, মনিরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তির ইমো আইডি হ্যাক করে ১ লাখ ২০ হাজার ৮৬০ টাকা হাতিয়ে নেয় হ্যাকিং চক্রের সদস্যরা। মনিরুল বিষয়টি র‌্যাবকে জানান। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে তথ্যপ্রযুক্তি ও গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে লালপুরের বিলমাড়িয়া এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় র‌্যাবের একটি দল। অভিযানে ইমো হ্যাকার চক্রের সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তাররা ইমো হ্যাক করে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে। পরে তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করে লালপুর থানায় সোপর্দ করা হয়।