সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন বিলটি পরিপূর্ণ আমলাতান্ত্রিক রচনা: মেনন
সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন বিলটি পরিপূর্ণ আমলাতান্ত্রিক রচনা: মেনন

সংগৃহীত ছবি

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন বিলটি পরিপূর্ণ আমলাতান্ত্রিক রচনা: মেনন

অনলাইন ডেস্ক

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন-২০২২ বিলটি পরিপূর্ণ আমলাতান্ত্রিক রচনা বলে জানিয়েছেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, ‘ক্ষেত মজুরদের এই পেনশন কোনো অনুদান না, এটা তাদের অধিকার। ’ 

শনিবার (২৬ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবে খেতমজুরসহ গ্রামীণ শ্রমজীবীদের জন্য জমাবিহীন পেনশন ব্যবস্থা চালু শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি একথা বলেন। গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা বয়স্কদের জন্য পেনশন স্কিমে খেতমজুর ও গ্রামীণ শ্রমজীবীদের আওতায় আনার দাবি জানান।

 

সংবিধানের ১৫ অনুচ্ছেদের দফা ঘ এর বিধান অনুযায়ী সামাজিক নিরাপত্তার অধিকার ও অন্যান্য অভাবগ্রস্তদের ক্ষেত্রে সরকারি সাহায্যের বিধান আইন প্রণয়ন আব্যশক বলে দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ খেতমজুর ইউনিয়ন।  

এ সময় প্যানেল আলোচকরা বলেন, দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে সামাজিক নিরাপত্তা ও সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থাপনা আইন-২০২২ খসড়া বিলটি প্রণয়ন করা সমীচীন বলে জানান তারা।

সংসদে এই বিলটি পাস হওয়ার আগে আইনটি নিয়ে আলোচনার দাবি জানান আলোচকরা। এই আইনটি পরিপূর্ণ আমলাতান্ত্রিক রচনা বলেও জানান মেনন।

 
পেনশন স্কিমকে খেতমজুর ও গ্রামীণ শ্রমজীবীদের জন্য জমাবিহীন বা নন কন্ট্রিবিউটরি করতে সংসদে বিষদ আলোচনার দাবি জানান মেনন।  

আলোচকরা জানান, সাস্টেনেবল ডেভেলপমেন্টের কথা বললে সবাই সুযোগ সুবিধা পাবে। মধ্যম আয়ের দেশ থেকে যখন উন্নত দেশের পথে হাটছি, সেখানে মিনিমাম টাকাটা যাতে ক্ষেতমজুররা পায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। আমাদের দেশে রাজস্ব কম, বড়লোকরা ট্যাক্স দেয় না। গরিবদের ওপর টেক্স বেশি ধরা হয়। এসব বিষয়ে আমাদের আলোচনা করতে হবে। কন্ট্রিবিউটিং সিস্টেম আমাদের করতে হবে। এখানে কে কতটুকু করবে তা আমাদের দেখতে হবে। ’

news24bd.tv/ইস্রাফিল