চলন্ত গাড়িতে আগুন : ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল যাত্রীরা
চলন্ত গাড়িতে আগুন : ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল যাত্রীরা

সংগৃহীত ছবি

চলন্ত গাড়িতে আগুন : ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল যাত্রীরা

অনলাইন ডেস্ক

চলন্ত গাড়িতে হঠাৎ আগুন ধরে যায়। আগুন দেখেই গাড়ি থামিয়ে চালকসহ যাত্রীরা দ্রুত নেমে পড়েন। পরে আশপাশের লোকজন ঝুঁকি নিয়ে গাড়িটিকে ঠেলে সড়কের পাশে একটি খাদে নিয়ে ফেলেন। এতে ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে যাত্রীরা যেমন রক্ষা পান, তেমনি গাড়িটিও ভস্মীভূত হয়নি।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার মানিকসিংহ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ধারণা করা হচ্ছে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে আগুন লাগতে পারে।

গাড়িটির যাত্রী ছিলেন দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার সাবেক যুগ্ম সম্পাদক তৌহিদুর রহমান, তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তান। ঘটনার পর তৌহিদুর রহমান বলেন, তিনিসহ সিলেটের যমুনা টেলিভিশনের প্রধান প্রতিবেদক মাহবুবুর রহমান পরিবারের সদস্যদের নিয়ে গতকাল বিকেলে একটি মাইক্রোবাস ও প্রাইভেট কারে করে জুড়ীর লাঠিটিলা সংরক্ষিত বন এলাকায় বেড়াতে যান।

এ সময় তাঁদের সঙ্গে কালের কণ্ঠ পত্রিকার মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি সাইফুল ইসলামও ছিলেন। ফেরার সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মানিকসিংহ বাজার এলাকায় পৌঁছালে তাঁদের বহনকারী মাইক্রোবাসের সামনে আগুন ধরে যায়। চালক গাড়ি থামালে তাঁরা তড়িঘড়ি করে বেরিয়ে নিরাপদ স্থানে চলে যান। এরপর পুরো গাড়িতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।  

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা বলেন, মাইক্রোবাসে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলতে দেখে অজয় দাস ও ইসলাম উদ্দিন নামের স্থানীয় দুই ট্রাকচালক দৌড়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তাঁরা পানি ঢেলে প্রথমে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। তাঁদের দেখে আরও কয়েকজন এগিয়ে আসেন। এরপর তাঁরা গাড়িটিকে ঠেলে সড়কের পাশে খাদে ফেলে দেন। খাদের পানিতে ডুবে যাওয়ায় আগুন নিভে যায়। খবর পেয়ে জুড়ী থানার পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। পরে স্থানীয় পরিবহনশ্রমিকদের সহায়তায় দুর্ঘটনাকবলিত গাড়িটিকে খাদ থেকে রশি দিয়ে টেনে তোলা হয়।

জুড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) খছরুল আলম বলেন, অল্পের জন্য মাইক্রোবাসের ভেতরে থাকা যাত্রী ও চালক রক্ষা পেয়েছেন। এ ছাড়া এলাকাবাসীর সাহসিকতায় গাড়িটিও রক্ষা পেয়েছে। আগুনে গাড়ির সামনের কিছু অংশের ক্ষতি হলেও অন্যান্য অংশ অক্ষত আছে।

news24bd.tv/কামরুল