ক্যান্সার সচেতনতা বাড়াতে সৈকতে নগ্ন আড়াই হাজার মানুষ
ক্যান্সার সচেতনতা বাড়াতে সৈকতে নগ্ন আড়াই হাজার মানুষ

ছবি: গেটি ইমেজ

ক্যান্সার সচেতনতা বাড়াতে সৈকতে নগ্ন আড়াই হাজার মানুষ

অনলাইন ডেস্ক

ত্বকের ক্যান্সারের বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে অস্ট্রেলিয়ার সিডনির বনডি সমুদ্র সৈকতে জড়ো হন প্রায় আড়াই হাজার নারী-পুরুষ। ফেটোশুটের জন্য শনিবার সকালে তারা সবাই নগ্ন হয়ে পোজ দেন। খবর বিবিসির।

তাদের ছবি তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতনামা আলোকচিত্রী স্পেন্সার টিউনিক।

যিনি বিশ্বের নানা ঐতিহাসিক স্থানে নগ্ন ছবি তোলার জন্য সুপরিচিত। টিউনিকের সর্বশেষ ছবি তোলার লক্ষ্য, অস্ট্রেলিয়ানদের নিয়মিত ত্বক পরীক্ষা করতে উৎসাহিত করা।

সৈকতে নগ্ন হয়ে ঘুরা নিয়ে কঠোর আইন ছিল অস্ট্রেলিয়ায়। তবে সচেতনতা তৈরির ফটোশুটের জন্য দেশটির আইনে পরিবর্তন আনা হয়।

ওয়ার্ল্ড ক্যান্সার রিসার্চ ফান্ডের তথ্য মতে, অস্ট্রেলিয়াই বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ত্বকের ক্যান্সারে আক্রান্ত দেশ।

শনিবার সিডনির বনডি সৈকতে যারা টিউনিকের ফটোশুটের মডেল হয়েছেন তারা সবাই স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেছেন। ফটোশুটে অংশ নিতে স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৩টা থেকে স্বেচ্ছাসেবকরা সৈকতে জড়ো হতে থাকেন তারা।

টিউনিক বলেন, ‘আমাদের ত্বকের পরীক্ষা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়ানোর ভালো সুযোগ আছে এবং আমি সম্মানিত... এখানে এসে, একটা শিল্প তৈরি করতে এবং শুধুমাত্র শরীর এবং সুরক্ষা উদযাপন করতে পেরে। ’

এই ফটোশুটে অংশ নেওয়া ৭৭ বছর বয়সী ব্রুচ ফিশার বলেন, ‘আমি আমার অর্ধেক জীবন সূর্যের তাপের মধ্যে কাটিয়েছি। এর ফলে আমার পিঠের কয়েকটি ম্যালিগন্যান্ট মেলানোমা (এক প্রকার ত্বকের ক্যান্সার) মুছে গেছে। ’

news24bd.tv/মামুন