স্পেন-জার্মানি লড়াই: প্রথমার্ধে গোল পেল না কোনো দল
স্পেন-জার্মানি লড়াই: প্রথমার্ধে গোল পেল না কোনো দল

স্পেন-জার্মানি লড়াই: প্রথমার্ধে গোল পেল না কোনো দল

অনলাইন ডেস্ক

কাতার বিশ্বকাপের প্রথম হাইভোল্টেজ ম্যাচ, স্পেন-জার্মানি লড়াই দেখতে সবার চোখ তাই আল বাইত স্টেডিয়ামে। কিন্তু প্রথমার্ধ দেখে দর্শকরা হতাশই হয়েছেন। দুই দল আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে ম্যাচ জমিয়ে তুললেও প্রথমার্ধে হয়নি কোনো গোল। ৩৯তম মিনিটে আন্টোনিও রুডিগার জার্মান সমর্থকদের আনন্দে ভাসিয়েছিলেন বটে, তবে তার গোলটি বাতিল হয় অফসাইডের কারণে।

রুডিগারের বাতিল হওয়া গোল ছাড়া প্রথমার্ধে স্পেনের গোলমুখে কোনো শটই রাখতে পারেননি জার্মান ফুটবলাররা। জার্মানি বেশ কয়েকবার পাল্টা আক্রমণে উঠলেও প্রথমার্ধে বল দখলে বেশ এগিয়ে ছিল স্পেন। আক্রমণেও ছিল দলটির দাপট। তবে কখনো জার্মান দেয়াল ম্যানুয়েল নয়্যার, কখনো আবার নিজেদের ভুলে গোল পাওয়া হয়নি স্পেনের।

স্পেন গোলের সেরা সুযোগটি তৈরি করে ৭ম মিনিটে। পেদ্রি-গাভির চমৎকার বল দেওয়া-নেওয়ার পর মার্কো আসেনসিওর পাস থেকে দানি ওলমো নেন দূরপাল্লার শট। তবে তার জোরাল শট নয়্যারের গ্লাভসে লেগে ক্রসবার ছুঁয়ে চলে যায় মাঠের বাইরে। এরপর ২২তম মিনিটে আবারও গোলের জন্য শট নেয় স্পেন। এবার বাঁ প্রান্ত থেকে আলবার নেওয়া আরও একটি দূরপাল্লার শট পোস্ট ঘেঁসে চলে যায় মাঠের বাইরে।

ধারার বিপরীতে গিয়ে ২৫তম মিনিটে স্পেনের রক্ষণভাগের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে গোলের সম্ভাবনা জাগায় জার্মানি। তবে স্প্যানিশ গোলরক্ষক উনাই সিমোনের ভুল পাস থেকে বল পেয়েও তা গোলমুখে রাখতে পারেনি সার্জ নাব্রি। পরের মিনিটে ভুল করেন জার্মান গোলরক্ষক নয়্যারও। তার পাস চলে যায় ওলমোর পায়ে। ওলমো বল বাড়ান ডি বক্সের সামনে ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা ফেরান তোরেসকে। কিন্তু তোরেসের শট ব্লক করেন জার্মান ডিফেন্ডাররা।

প্রথম ম্যাচে জোড়া গোল করা তোরেস ৩৫তম মিনিটে আবারও গোলের সম্ভাবনা জাগান। কর্নার থেকে আসা বলে জোরাল শটে জালে পাঠানোর চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু এ যাত্রায় তার শট ব্লক করে মাঠের বাইরে পাঠিয়ে দেন জামাল মুসিয়ালা। এরপরই গোলটি পেয়ে যায় জার্মানি। ডান প্রান্ত থেকে জশুয়া কিমিখের ফ্রি থেকে হেডে সিমোনকে পরাস্ত করেন ডিফেন্ডার রুডিগার। কিন্তু ভিএআরের সহায়তা নিয়ে রেফারি বাজান, অফসাইডের বাঁশি।

বিরতির আগে সেই কিমিখের আরও একটি ফ্রি কিক থেকে রুডিগার গোলমুখে নিয়েছিলেন শট। কিন্তু এবার তার জোরাল শট রুখে দেন উনাই সিমোন। ফলে স্পেনের মতো গোলহীন থেকেই বিরতিতে যেতে হয় হান্সি ফ্লিকের শিষ্যদের।

news24bd.tv/সাব্বির