ডোপ টেস্টে ধরা, ভিক্ষুশূন্য মন্দির 
ডোপ টেস্টে ধরা, ভিক্ষুশূন্য মন্দির 

প্রতীকী ছবি

ডোপ টেস্টে ধরা, ভিক্ষুশূন্য মন্দির 

অনলাইন ডেস্ক

থাইল্যান্ডের ছোট্ট একটি মন্দিরের প্রধান ভিক্ষুসহ সব ভিক্ষুর মাদক পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসার পর ওই মন্দির থেকে তাদের বের করে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে ওই মন্দিরে কোনও ভিক্ষু নেই বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। খবর বিবিসি

বুনলার্ট থিন্তাপথাই নামে এক কর্মকর্তা জানান, উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ ফেচাবুনের বাং স্যাম ফান জেলার একটি ছোট বৌদ্ধ মন্দিরে ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ায় প্রধান ভিক্ষুসহ চারজনকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

ওই চারজনই মেথামফেটিন মাদক নিয়েছেন। মেথামফেটিন একটি স্নায়ুতন্ত্র উত্তেজক ওষুধ; অনেক সময় যা আনন্দদায়ক হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

ওই কর্মকর্তা আরও জানান, ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার পর চার ভিক্ষুকে মাদক পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। থাইল্যান্ডজুড়ে মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে এই পরীক্ষা চালানো হয়।

পুলিশ জানায়, সোমবার ভিক্ষুদের প্রস্রাব পরীক্ষার পর তাদের বরখাস্ত করা হয়। তবে কী কারণে মন্দিরের ভিক্ষুদের ডোপ টেস্ট করানো হয়েছিল, তা নিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

থিন্তাপথাই বলেন, মন্দিরটি এখন ভিক্ষুশূন্য। আর এ কারণে ধর্মীয় কর্মকাণ্ড না করতে পারার শঙ্কায় আছেন আশপাশের গ্রামের মানুষ।

জাতিসংঘের মাদক ও অপরাধবিষয়ক অফিস জানায়, গত বছর থাইল্যান্ডে এ যাবতকালের সবচেয়ে বেশি মেথামফেটামিন মাদক জব্দ করা হয়। মেথামফেটামিন পাচারের অন্যতম ট্রানজিট পয়েন্ট থাইল্যান্ড। মিয়ানমার হয়ে প্রচুর মেথামফেটামিন ঢোকে দেশটিতে।

news24bd.tv/আলী

সম্পর্কিত খবর