‘জীবনে আর আওয়ামী লীগের নাম মুখে আনব না’
‘জীবনে আর আওয়ামী লীগের নাম মুখে আনব না’

সংগৃহীত ছবি

‘জীবনে আর আওয়ামী লীগের নাম মুখে আনব না’

অনলাইন ডেস্ক

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সন্ধানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম আজাদ। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগের নামও আর মুখে আনবেন না। গত সোমবার উপজেলার টেপিকুশারিয়া এলাকায় এক আলোচনা সভায় এ ঘোষণা দেন তিনি।

রফিকুল ইসলাম বলেন, ৩০ থেকে ৩২ বছর ধরে আওয়ামী লীগের সঙ্গে আছি, কাজ করেছি।

এর বিনিময়ে কিছুই পাইনি। দল আমার শ্রমের মর্যাদা দেবে বলে আশা করেছিলাম। কিন্তু দিলো না।

আগামী ২৯ ডিসেম্বর ঘাটাইলের পাঁচ ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এতে সন্ধানপুর ইউনিয়ন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন রফিকুল ইসলাম আজাদ। কিন্তু তিনি দলীয় মনোনয়ন পাননি। মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করারও ঘোষণা দেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের এই নেতা।

তিনি বলেন, আমি গায়ে আর মুজিবকোর্ট জড়াব না। যতদিন বেঁচে থাকব, ততদিন আওয়ামী লীগের নাম মুখেও আনব না।

এছাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্যপদ এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, এরই মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। আমি দলীয় মনোনয়নের ব্যাপারে আশাবাদী ছিলাম। আমার পরিবর্তে যাকে নৌকা দেওয়া হয়েছে তিনি আওয়ামী লীগের সদস্যই নয়। একজন অযোগ্য লোক।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম মিয়া সমকালকে বলেন, রফিকুল ইসলাম আজাদ পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। কিন্তু আমরা সেটি গ্রহণ করিনি। তাকে বোঝানো হয়েছে। দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে কেউ নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচন করলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, ২৭ নভেম্বর আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মনোনয়ন বোর্ডের এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দলীয় মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করা হয়। তালিকা অনুযায়ী, ঘাটাইলের সন্ধানপুর ইউনিয়নে মো. বেলায়েত হোসেনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

news24bd.tv/আলী