ব্রাজিলকে হারিয়েও শেষ ষোলোতে জায়গা হলো না ক্যামেরুনের
ব্রাজিলকে হারিয়েও শেষ ষোলোতে জায়গা হলো না ক্যামেরুনের

সংগৃহীত ছবি

ব্রাজিলকে হারিয়েও শেষ ষোলোতে জায়গা হলো না ক্যামেরুনের

অনলাইন ডেস্ক

শেষ ষোলো আগেই নিশ্চিত হওয়ায় সাইড বেঞ্চে থাকা ফুটবলারদের ক্যামেরুন পরীক্ষায় নামায় ব্রাজিল কোচ তিতে। এদিন ৯ পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে ব্রাজিল। তবে ক্যামেরুনের লক্ষ্যটা ভিন্ন। শেষ ষোলোতে যেতে রেকর্ড পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারাতেই হতো তাদের।

ম্যাচে ব্রাজিলের আক্রমণ সামলিয়ে পাল্টা আক্রমণে যাওয়ার সুযোগ কমই হয়েছে তাদের। তবে ম্যাচের অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে দারুণ হেডে গোল করে দলকে উদযাপনের মুহূর্ত এনে দেন ক্যামেরুন অধিনায়ক। আর এই গোলটিই ব্যবধান গড়ে দেয় ম্যাচের। শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলের জয় পায় ক্যামেরুন।

তবে গ্রুপের অপর ম্যাচে সার্বিয়াকে ৩-২ গোলে হারিয়ে গোল ব্যবধানে ক্যামেরুনকে পেছনে ফেলে দেয় সুইজারল্যান্ড। তাই ব্রাজিলকে হারিয়েও শেষ পর্যন্ত শেষ ষোলেতে যাওয়া হলো না ক্যামেরুনের। অন্যদিকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই পরের রাউন্ডে পা রেখেছে তিতের দল। ব্রাজিলের পরের ম্যাচ আগামী ৬ ডিসেম্বর; যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ কোরিয়া।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ চালিয়ে গেছে ব্রাজিল। তিতের সাইড বেঞ্চে থাকা ফুটবলাররা সুযোগ পেয়ে ভালোই আক্রমণ শানাচ্ছিল।  

ম্যাচের ১৩ মিনিটে আসে প্রথম সুযোগ। তবে উদযাপনের মুহূর্ত পায়নি ব্রাজিল সমর্থকরা। গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেলির হেড দক্ষতার সাথে ঠেকিয়ে দেন ক্যামেরুন গোলরক্ষক ডেভিস এপাসি। নিশ্চিত গোল থেকে বঞ্চিত হয় ব্রাজিল।

১৯ মিনিটে ব্রাজিল রক্ষণের পরীক্ষা নেয় ক্যামেরুন। ব্রাজিল রক্ষণকে ফাঁকি দিয়ে আক্রমণ জমিয়ে ফেলে ক্যামেরুন। তবে ফাঁকি দেয়া যায়নি ব্রাজিল রক্ষণের শেষ প্রহরী এডারসনকে। দক্ষতার সাথে ক্যামেরুনের আক্রমণ পরাস্ত করে দেন ম্যানচেস্টার সিটির এই গোলরক্ষক।

এরপর একাধিকবার আক্রমণে গেছে ব্রাজিলের আক্রমণভাগ। তবে ক্যামেরুনের রক্ষণে চির ধরানো যায়নি। ফলাফল, প্রথমার্ধ শেষ হয়েছে গোলশূন্য সমতায়। তবে ক্যামেরুনের থেকে গোল ব্যবধান ও গোলের উদ্দেশ্যে শট নেওয়ায় এগিয়ে ছিল ব্রাজিলই।

দ্বিতীয়ার্ধে নেমেই গোল করার সেরা সুযোগ পায় ক্যামেরুন। তবে লক্ষ্য ভেদ করতে পারেনি ক্যামেরুনের আক্রমণভাগ। খানিক পর ম্যাচের ৫২ মিনিটে ক্যামেরুণ রক্ষণ কেঁপে উঠে ব্রাজিলের আক্রমণে। তবে এবারও উদযাপনের মুহূর্ত পায়নি ব্রাজিল সমর্থকরা।

৫৫ মিনিটে আরও একবার আক্রমণে উঠে ভয় ধরায় ব্রাজিলের আক্রমণভাগ। তবে এবারও মার্টিনেলিকে হতাশ করেন এপাসি।

এরপর সময় যত গড়িয়েছে একের পর এক আক্রমণে গেছে ব্রাজিল। তবে গোলের খেলা ফুটবলে গোলটাই আসছিল না। অতিরিক্ত যোগ করা সময়ে দারুণ হেডে ব্রাজিলের জালে বল পাঠিয়ে ক্যামেরুনকে উল্লাসে ভাসান ভিনসেন্ট আবুবকর। গোল করে অতি উদযাপন করতে গিয়ে জার্সি খোলে ফেলেন আবুবকর। ফলে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাকে। তবে তাতেও যে এতটুকু দুঃখ নেই তার। হাসিতেই তিনি পরিষ্কার করে গেছেন সে কথা।  

এরপর আক্রমণে গিয়েও আর লাভ হয়নি ব্রাজিলের। ১-০ গোলের হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে তিতের দলকে। তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই পরের রাউন্ডে পা রেখেছে ব্রাজিল।

news24bd.tv/আমিরুল