আসামে বঙ্গবন্ধু কর্নার ও বঙ্গবন্ধু গার্ডেন উদ্বোধন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর
আসামে বঙ্গবন্ধু কর্নার ও বঙ্গবন্ধু গার্ডেন উদ্বোধন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

সংগৃহীত ছবি

আসামে বঙ্গবন্ধু কর্নার ও বঙ্গবন্ধু গার্ডেন উদ্বোধন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় রাজ্য আসামের শিলচরে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজিতে (এনআইটি) ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ এবং ‘বঙ্গবন্ধু গার্ডেন’ উদ্বোধন করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন। শনিবার (৩ ডিসেম্বর) এনআইটি-র ভারতরত্ন ড. এপিজে আবদুল কালাম লার্নিং অ্যান্ড রিসোর্স সেন্টারে বঙ্গবন্ধু কর্নার এবং বঙ্গবন্ধু গার্ডেনটি ইনস্টিটিউটের লাইব্রেরি প্রাঙ্গণে স্থাপন করা হয়।

এনআইটি পরিচালক অধ্যাপক রজত গুপ্তের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু কর্নার ও গার্ডেন উদ্বোধনের পর বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে প্রতিষ্ঠানে একটি আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এনআইটির মতো একটি প্রতিষ্ঠিত ও স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান যেখানে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম ডিজিটাল আর্কাইভ রয়েছে সেখানে বঙ্গবন্ধু কর্নার এবং বঙ্গবন্ধু গার্ডেন স্থাপন করায় মোমেন ভারত সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধু কর্নারের মাধ্যমে নির্যাতিত মানুষের মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধুর জীবনব্যাপী সংগ্রামের পাশাপাশি তার নীতি ও স্বপ্ন সম্পর্কে আরও জানতে পারবে।

এছাড়া বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম এবং ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত কীভাবে বাংলাদেশকে সমর্থন করেছিল, সে বিষয় শিক্ষার্থীরা জানতে পারবে বলেও জানান তিনি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারত একই ধরনের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য ও ভাষার গভীর বন্ধনে আবদ্ধ। জনগণের মধ্যে দৃঢ় যোগাযোগ থাকলে, আমাদের (বাংলাদেশ ও ভারত) মধ্যে কোনো বাধা থাকতে পারে না।

বঙ্গবন্ধু গার্ডেনে একটি চারা রোপণকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের অধীনে বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও উন্নয়নের ওপর নিজের  লেখা ও সম্পাদিত কিছু বই বঙ্গবন্ধু কর্নারে উপহার দেন।

সূত্র: বাসস

news24bd.tv/ইস্রাফিল