২১ বছর বয়সেই চলে গেলেন টিকটক তারকা মেঘা
২১ বছর বয়সেই চলে গেলেন টিকটক তারকা মেঘা

সংগৃহীত ছবি

২১ বছর বয়সেই চলে গেলেন টিকটক তারকা মেঘা

অনলাইন ডেস্ক

বর্তমান সময়ে টিকটক অ্যাপ বেশ জনপ্রিয়। রাতারাতি তারকা বনে যেতে এ মাধ্যমে তরুণ-তরুণীরাই বেশিরভাগ ভিডিও তৈরি করে থাকে। এ মাধ্যমেই ভিডিও তৈরি করে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল ভারতীয় বংশোদ্ভূত টিকটক তারকা মেঘা ঠাকুর। মাত্র ২১ বছর বয়সেই না ফেরার দেশে চলে গেলেন মেঘা।

কিন্তু কীভাবে মেঘার মৃত্যু হলো, তা এখনও স্পষ্ট নয়।  

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, আচমকা প্রয়াত হলেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত টিকটক তারকা তথা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পরিচিত প্রভাবক (ইনফ্লুয়েন্সার) মেঘা ঠাকুর। গত ২৪ নভেম্বর তার মৃত্যু হয়েছে বলেও জানানো হয়।  

সম্প্রতি মেঘার মা-বাবা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেয়ের মৃত্যুসংবাদ নিশ্চিত করে লেখেন, 'ভারাক্রান্ত হৃদয়ে জানাচ্ছি, আমাদের জীবনের আলো, আমাদের ফুটফুটে মেয়েটি, মেঘা ঠাকুর, গত ২৪ নভেম্বর সকালে আচমকা এবং চূড়ান্ত অপ্রত্যাশিতভাবে প্রয়াত হয়েছে।

'

এদিকে, মেঘার এই আচমকা চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন না বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা তার অনুরাগীরা। তাদের একটি অংশের দাবি, ৪ মাস আগে একটি ভিডিওতে মেঘা জানিয়েছিলেন, উদ্বেগের কারণে তিনি হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তবে কী কারণে জীবনের সব আয়োজনকে বিদায় জানালেন জানা যায়নি।

২০০১ সালে ইনদওরে জন্ম মেঘার। তার বয়স যখন মাত্র ১, তখনই তাকে নিয়ে কানাডা চলে যান তার মা-বাবা। তারপর থেকে সেই দেশেই ছিলেন মেঘা। কলেজপড়ুয়া অবস্থাতেই টিকটক ভিডিও তৈরি করতে শুরু করেন মেঘা। এরপর নেটিজেনদের কাছে বেশ জনপ্রিয়ও হয়ে ওঠেন।  বিপুল জনপ্রিয় মেঘার যাত্রা চিরকালের মতো থেমে গেল, একেবারে আচমকাই।

news24bd.tv/রিমু