সারাদেশে ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ১৮৩৭
সারাদেশে ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ১৮৩৭

সংগৃহীত ছবি

সারাদেশে ২৪ ঘণ্টায় গ্রেপ্তার ১৮৩৭

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবিপ্রধান) মো. হারুন অর রশীদ বলেছেন, নাশকতাসহ সুনির্দিষ্ট মামলা রয়েছে এমন ব্যক্তিদেরই গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। সোমবার (৫ ডিসেম্বর) ডিএমপি কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান তিনি।  সারা দেশে দফায় দফায় অভিযান চালাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনী। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব বলছে, ১০ ডিসেম্বর ঘিরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উসকানিদাতাদের নজরদারিতে রাখা হচ্ছে।

গত ১ ডিসেম্বর থেকে সারা দেশে শুরু হয়েছে পুলিশের বিশেষ এ অভিযান। পুলিশ সদর দফতর থেকে বলা হয়েছে, অভিযান চলবে আগামী ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ঢাকার বিভিন্ন এলাকার আবাসিক হোটেল ও মেসে দফায় দফায় অভিযান পরিচালনা করছে পুলিশ। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বাসায়ও চলছে অভিযান।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) পর্যন্ত শুধু রাজধানীতেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৪৭২ জনকে। ঢাকার বাইরেও চলছে এ অভিযান। ১ ডিসেম্বর শুরু হওয়া অভিযানের চতুর্থ দিন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১ হাজার ৩৬৫ জনকে। বিএনপির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে টার্গেট করে শুধু দলের নেতাকর্মীদের আটক করা হচ্ছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, সমাবেশকে কেন্দ্র করে আটক করা হচ্ছে, নেতারা কেউ বাড়িতেই থাকতে পারছেন না। ব্লক রেইড হচ্ছে।

এ কথার জবাবে ডিবিপ্রধান জানান, যাদের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে, তাদেরই গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। পুরোনো নাশকতার মামলায় এবং গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আসামিদের দিকে মনোযোগ তাদের।

এদিকে বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংস্থার আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, ১০ ডিসেম্বর ঘিরে কেউ নাশকতা করার চেষ্টা করছে কি না বা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উসকানি দিচ্ছে কী না, তা নজরদারি করা হচ্ছে। বিশেষ অভিযান শুরুর পর ঢাকায় চেকপোস্ট ও টহল ডিউটি বাড়ানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।