স্পেনের সামনে আত্মবিশ্বাসী মরক্কো
স্পেনের সামনে আত্মবিশ্বাসী মরক্কো

সংগৃহীত ছবি

স্পেনের সামনে আত্মবিশ্বাসী মরক্কো

অনলাইন ডেস্ক

গ্রুপপর্বে বেলজিয়ামকে বিদায় করে ক্রোয়েশিয়াকে পেছনে ফেলে আত্মবিশ্বাসের চূড়ায় থেকে শেষ ষোলোতে পা রেখেছে মরক্কো। অন্যদিকে গ্রুপপর্বে জাপানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে ধাক্কা খেয়েছে ২০১০ বিশ্বকাপ জয়ী স্পেন। এই দু’দলের কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াই আজ। বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় মাঠে গড়াবে ম্যাচটি।

১৯৮৬ সালের পর প্রথমবারের মতো নকআউট পর্বে পা রেখেছে আফ্রিকার দল মরক্কো। গ্রুপপর্বে নিজেদের শক্তিমত্তার জানান দিয়েছে তারা। তাদের কাছে ২-০ গোলে হেরেই বিদায় নিতে হয়েছে বেলজিয়ামকে। অন্যদিকে গ্রুপপর্বে ক্রোয়েশিয়াকেও গোল বঞ্চিত রেখে মুনশিয়ানা দেখিয়েছে আফ্রিকার দলটি।

কাজেই বহুবছর পর বিশ্বকাপের নকআউট পর্ব রাঙাতে চাইবে তারা।

অন্যদিকে কোস্টা রিকাকে ৭ শূন্য গোলে উড়িয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করে তারুণ্য নির্ভর স্পেন। পরের ম্যাচ জার্মানির বিপক্ষে ড্র’করে তারা। আর শেষ ম্যাচে হেরে বসে জাপানের বিপক্ষে। যদিও তাতে শেষ ষোলো নিশ্চিত করতে কোনো অসুবিধাই হয়নি তাদের। তবে চির ধরে প্রথম ম্যাচে পাওয়া আত্মবিশ্বাসে। তবে ভেঙে না পরে ভুল শুধরে মরক্কোর বিপক্ষে মাঠে নামতে মুখিয়ে আছে লুইস এনরিকের দল।

এনিয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতায় টানা আট ম্যাচে অপরাজিত রয়েছে মরক্কো। ম্যাচগুলোতে হজম করেছে মোটে দুই গোল।  

বিপরীতে লুইস এনরিকের স্পেন এদিক থেকে কিছুটা হলেও পিছিয়ে। গ্রুপের শেষ ম্যাচে জাপানের কাউন্টার অ্যাটাকের সামনে দাঁড়াতে পারেনি স্প্যানিশ রক্ষনভাগ। যার পরিণতি ২-১ গোলে হার। আলভারো মোরাতার ১১ মিনিটের গোলে লিড নিয়েছিল স্পেন। কিন্তু জাপানিজ কোচ হাজিমে মোরিইয়াসুর খেলোয়াড় বদলীর কৌশলে কাছে হার মানতে বাধ্য হয় স্পেন।  

স্পেন যদি গ্রুপের শীর্ষস্থান লাভ করতো তবে শেষ ষোলতে তাদের প্রতিপক্ষ হতো ক্রোয়েশিয়া। যে কারণে দ্বিতীয় স্থান পাওয়া অনেকটা সৌভাগ্য বয়ে এনেছে বলে অনেকেই মত দিয়েছেন। তবে এনরিকে জানেন আগামীকালকের ম্যাচটি তার দলের জন্য কতটা কঠিন।

২০১৮ বিশ্বকাপে শেষ ষোলো থেকে বিদায় নিয়েছিল স্পেন। পরপর দুইবার একই স্থানে থেকে বিদায় নেবার কোন ইচ্ছা নেই স্প্যানিশদের। গ্রুপপর্বে ইংল্যান্ডের সমান সর্বোচ্চ ৯ গোল দিয়েছে তারা। চার বছর আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে গ্রুপেপর্বে মরক্কোর মুখোমুখি হয়েছিল স্পেন। ইয়াগো আসপাসের শেষ মুহূর্তের সমতায় ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলে ড্র হয়েছিল।

মরক্কোর বিপক্ষে তাই প্রস্তুতিটা নিয়ে রেখেছেন এনরিকে। নকআউট পর্বের ম্যাচ হওয়ায় খেলা গড়াতে পারে টাইব্রেকারে। তবে সেখানেও যাতে হতাশ হতে না হয় সে জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে স্পেন। স্প্যানিশ কোচ এনরিকে বলেন, ‘গত ইউরোয় আমরা টাইব্রেকারে ইতালির কাছে হেরেছি। পেনাল্টি কিন্তু লটারি নয়। খেলোয়াড়দের বলেছিলাম বিশ্বকাপের আগে সবাই যেন ১০০০ পেনাল্টি অনুশীলন করে আসে। আমার ধারণা সবাই নিজেদের হোম ওয়ার্ক করে এসেছে। ’

news24bd.tv/আমিরুল