পেটকোভিচে স্তব্ধ ব্রাজিল, টাইব্রেকে ঝুলে আছে ম্যাচের ভাগ্য
পেটকোভিচে স্তব্ধ ব্রাজিল, টাইব্রেকে ঝুলে আছে ম্যাচের ভাগ্য

সংগৃহীত ছবি

পেটকোভিচে স্তব্ধ ব্রাজিল, টাইব্রেকে ঝুলে আছে ম্যাচের ভাগ্য

অনলাইন ডেস্ক

নির্ধারিত সময়ে গোলশূন্য ড্র’য়ে থাকা ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। সেখানে মুনশিয়ানা দেখিয়েছে ব্রাজিল। ক্রোয়াট রক্ষণভাগের ফুটবলারদের নাচিয়ে নেইমার বল নিয়ে ডুকে পরে ডি বক্সে। সেখানে ক্রোয়াট রক্ষা প্রাচীর ডমিনিক লিভাকোভিচকে পরাস্ত করে গোল আদায় করে নেন নেইমার।

আর তাতেই বনে যান ইতিহাস। এদিন দলকে কঠিন বিপদের মুখ থেকে রক্ষা করে পেলের সর্বোচ্চ ৭৭ গোলের রেকর্ড স্পর্শ করেছেন ৩০ বছর বয়সী এই ফুটবলার। তবে শেষ রক্ষা আর হলো কই। ডুবতে থাকা ক্রোয়াটদের রক্ষা করেন ব্রুনো পেটকোভিচ।
তার গোলে সমতায় ফেরে ক্রোয়েশিয়া। জন্ম হয় নাটকীয়তার।


অতিরিক্ত সময়ের শুরুতে বেশকবার আক্রমণে গিয়েছে ক্রোয়াটরা। তবে সাফল্যের মুখ দেখেনি সেই আক্রমণ। উল্টো ম্যাচের ১০৬ মিনিটে নেইমারে কেঁপে উঠে ক্রোয়াট রক্ষাপ্রচীর। গোল করার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়ে ডুবতে থাকা ব্রাজিলকে পথ দেখান পিএসজি ফরোয়ার্ড। এখানেই শেষ হতে পারতো গল্পটা। হেক্সা জয়ের পথে আরও একধাপ এগিয়ে সেমিফাইনালে পা রাখতে পারত ব্রাজিল। তবে পেটকোভিচের গোলে অপেক্ষা বাড়ে ব্রাজিলের। স্তব্ধ হয়ে যায় গ্যালারি। ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকে। এখন দেখার পালা কে হাসে শেষ হাসি।

এর আগে, প্রথমার্ধে গোলশূন্য ড্র’য়ে থাকা ম্যাচ দ্বিতীয়ার্ধেও দেখেনি ফল। নির্ধারিত সময়ে গোলশূন্য ড্র’য়ে শেষ হয় ক্রোয়েশিয়া-ব্রাজিলের কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াই। প্রথমার্ধের মতো দ্বিতীয়ার্ধেও ব্রাজিলের বেশকিছু আক্রমণ প্রতিহত করে তিতের দলকে গোল বঞ্চিত রাখে ক্রোয়েশিয়া গোলরক্ষক ডমিনিক লিভাকোভিচ। তার নৈপুণ্যেই ম্যাচ গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। তবে সেখানে আর নেইমারকে রুখতে পারেননি লিভাকোভিচ। শেষটাই নেইমারের কাছে পরাস্ত হতে হয় তাকে। তবে ক্রোয়াটদের উদ্ধার করেছেন পেটকোভিচ।

news24bd.tv/আমিরুল