মামা-ভাগ্নের বিবাদ থামাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে যুবক নিহত
মামা-ভাগ্নের বিবাদ থামাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে যুবক নিহত

সংগৃহীত ছবি

মামা-ভাগ্নের বিবাদ থামাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে যুবক নিহত

অনলাইন ডেস্ক

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে মামা-ভাগ্নের বিবাদ থামাতে গিয়ে লাঠির আঘাতে পাভেল মিয়া (২৬) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত পাভেল উপজেলার কাটাবাড়ী ইউনিয়নের বিশুলিয়া গ্রামের আব্দুল জব্বার মন্ডলের ছেলে।

গোবিন্দগঞ্জের বৈরাগী পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ মিলন চ্যাটাজি জানান, গত সোমবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে স্থানীয় বাগদা বাজারে মামা-ভাগ্নের মধ্যে টাকার ভাগাভাগি নিয়ে মারামারি শুরু হয়।

এ সময় তাদের প্রতিবেশী পাভেল মিয়া মারামারি থামাতে এগিয়ে যান। এর এক পর্যায়ে পাভেলের মাথায় লাঠির আঘাত লাগে এবং গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎকদের কাছে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এরপর থেকে পাভেল বাড়িতেই ছিলেন।

কিন্তু মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হঠাৎ পাভেলের শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। উন্নত চিকিৎসার তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সেখানেই তার মৃতু হয়।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইজার উদ্দীন বলেন, পাভেলের মৃত্যুর খবর শুনেছি। তবে এ বিষয়ে এখনও কেউ থানায় অভিযোগ করেনি।