চাকরি ছাড়ছেন হোয়াইট হাউজের পরামর্শক ডন ম্যাকগান

নিউজ টোয়েন্টিফোর অনলাইন

চাকরি ছাড়ছেন হোয়াইট হাউজের পরামর্শক ডন ম্যাকগান

ট্রাম্পের পেছনে ডন ম্যাকগান। সংগৃহীত ছবি

এবার ট্রাম্প প্রশাসন থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন হোয়াইট হাউসের আরও এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তিনি হোয়াইট হাউসের পরামর্শক ও আইনজীবী ডন ম্যাকগান (Don McGahn)। দীর্ঘদিন ধরে ট্রাম্পের সঙ্গে কাজ করছিলেন তিনি। মাসখানেকের মধ্যেই তাকে বিদায় নিতে হতে পারে বলে জানা গেছে।

গতকাল বুধবার এক টুইটে এ কথা জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প। তিনি বলেন, সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতি ব্রেট কাভানাউয়ের নিশ্চিতকরণের পরেই তিনি চাকরি ছেড়ে যাবেন। টুইটে ট্রাম্প এও বলেন, ''ডন ম্যাকগানের সঙ্গে আমি দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি, তার কাজ সত্যিই প্রশংসা পাওয়ার দাবিদার''।

যদিও ম্যাকগান বলেছেন, এ নিয়ে তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে কোনো আলোচনা করেননি। কিন্তু ট্রাম্পের টুইট দেখে তিনি হতবাক হয়েছেন।

ম্যাকগান ছিলেন ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচার শিবিরের একজন আইনজীবী। হোয়াইট হাউস ছেড়ে যাওয়া জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের মধ্যে তিনি হবেন সর্বশেষ ব্যক্তি। 

এদিকে বিষয়টি সেচ্ছায় সরে দাঁড়ানো নাকি পদচ্যুত তা নিয়ে মার্কিন রাজনৈতিক অঙ্গনে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। অনেকেই মনে করছেন, বিগত মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের বিষয়ে তদন্ত কমিটিকে ম্যাকগানের সহযোগিতায় অস্বস্তিতে পড়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। আর এ কারণেই তার বিদায়।

মূলত, ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার সংশ্লিষ্টতা ইস্যুতেই ডন ম্যাকগানকে চাকরি ছাড়তে হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। ওই ঘটনা তদন্তে ম্যাকগানের সহযোগিতার খবর প্রকাশের পরই তার এ প্রস্থানের বিষয়টি সামনে এলো। গত সপ্তাহে নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, গত নয় মাসে ম্যাকগান ৩০ ঘন্টা তদন্তকারীদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন এবং তদন্তে সহযোগিতা করেছেন। তদন্তের স্বার্থে তাকে ডাকা হয়। তিনি মার্কিন বিচার বিভাগের বিশেষ কৌঁসুলি রবার্ট মুলারের সঙ্গে দেখা করেছেন যিনি এই তদন্তদলের প্রধান। স্পেশাল কাউন্সেল রবার্ট মুলারকে তিনি ব্যাপকভাবে সহযোগিতা করেছেন। তার 'সহযোগিতায় অস্বস্তিতে' পড়েছে হোয়াইট হাউস। এরপরই ডন ম্যাকগানের পদচ্যুত হওয়ার খবর এলো।

যদিও মুলারের এ তদন্তকে পক্ষপাতদুষ্ট বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ম্যাকগানের ঘনিষ্ঠ একজন ওয়াশিংটন পোস্টকে জানান, আগামী শরতে তাঁর পদত্যাগের পরিকল্পনা রয়েছে।

২০১৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ এবং সে সময়ের রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নির্বাচনে জয়ী করার ক্ষেত্রে রুশ সরকারের বিরুদ্ধে আঁতাত করার অভিযোগ রয়েছে। সেই অভিযোগের বিষয়ে এখনো তদন্ত চলছে। তদন্ত করছেন দেশটির বিচার বিভাগের স্পেশাল কাউনসেল রবার্ট মুলার। -সিএনএন, নিউইয়ক টাইমস।

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাশিয়ায় নাভালনির সমর্থনে বিক্ষোভ, আটক প্রায় ২ হাজার

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়ায় নাভালনির সমর্থনে বিক্ষোভ, আটক প্রায় ২ হাজার

রাশিয়ায় অ্যালেক্সেই নাভালনির সমর্থনে বুধবার রাশিয়ার কয়েক ডজন শহরে বিক্ষোভ হয়েছে। এই বিক্ষোভে আটক করা হয়েছে ১ হাজার ৭০০ জনেরও বেশি বিক্ষোভকারীকে।

বার্তা সংস্থা এএফপির জানায়, বুধবার রাতে রাশিয়ার বিভিন্ন শহরে রাস্তায় নেমে আসেন হাজার হাজার মানুষ। এসময় তারা নাভালনির মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে বিক্ষোভ করেন। সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ হয়েছে দেশটির রাজধানী মস্কোতে।

একটি পর্যবেক্ষক সংগঠনের দাবি, বিক্ষোভে অংশ নেয়ায় রাশিয়ার ৯৭টি শহর থেকে অন্তত ১ হাজার ৭৮৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

সবচেয়ে বেশি ৮০৫ জন আটক হয়েছেন সেইন্ট পিটার্সবার্গ থেকে। শহরটিতে শক স্টিক (বৈদ্যুতিক শক দেয়া লাঠি) নিয়ে বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয়েছিল নিরাপত্তা বাহিনী।

আটক ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন নাভালনির প্রেস সচিব কিরা ইয়ারমিশ। অননুমোদিত বিক্ষোভে অংশগ্রহণের আহ্বান জানানোয় তাকে ১০ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

১৫ বছর ধরে কাজে যান না, বেতন তুললেন সাড়ে ৫ কোটি টাকা!


পুরোনো একটি মামলায় গত ফেব্রুয়ারিতে কারাগারে পাঠানো হয় অ্যালেক্সেই নাভালনিকে। বর্তমানে মস্কোর বাইরে একটি পেনাল কলোনিতে বন্দি রয়েছেন রুশ বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি।

সেখানে উন্নত চিকিৎসার দাবিতে গত ৩১ মার্চ থেকে অনশন করছেন তিনি। এর ফলে তার শারীরিক অবস্থার গুরুতর অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

অনলাইন ডেস্ক

ভিক্ষা করে হলেও অক্সিজেন সরবরাহের নির্দেশ ভারতে

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সবচেয়ে বেশি মারাত্মক আকার ধারণ করেছে ভারতেই। দেশটিতে দৈনিক সংক্রমণ ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে দেশটির প্রতিটি রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকার। এমতাবস্থায় দিল্লির হাইকোর্ট হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে যা করা লাগে, সেটাই করার নির্দেশ দিয়েছেন।

দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্রকে বলেন, অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করতে আপনারা সব উপায় খুঁজে দেখছেন না। ভিক্ষা করুন, ধার করুন বা চুরি করুন।

হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে না বলে এসময় সতর্ক করে দেয় হাইকোর্ট।

জরুরি পরিস্থিতির গুরুত্ব অনুধাবন করে সরকার কোন পদক্ষেপ না নেয়ায় কেন্দ্রীয় সরকারকেও ভৎর্সনা করেন দিল্লি হাইকোর্ট।

ছুটির দিনেই এক জরুরি শুনানিতে আদালত এসব মন্তব্য করেন। বেশ কয়েকটি হাসপাতাল পরিচালনা করা বালাজি মেডিকেল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টারের আবেদনের প্রেক্ষিতে এই শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

বেনজেমা ভেল্কিতে লা লিগার শীর্ষে রিয়াল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন


বিচারপতি ভিপিন সাঙ্গি এবং রেখা পাল্লি বেঞ্চ এদিন কেন্দ্রের সমালোচনা করে বলেন, আপনারা কি দেখতে পাচ্ছেন না দেশে হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে?

তারা আরও বলেন, অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করার দায়িত্ব পুরোপুরি কেন্দ্রীয় সরকারের। প্রয়োজনে স্টিল এবং পেট্রোলিয়ামসহ অন্য শিল্পে অক্সিজেন সরবরাহ বন্ধ করে তা মেডিকেল ব্যবহারের জন্য নিশ্চিত করতে হবে। হাসপাতালগুলোতে অক্সিজেন সরবরাহ শেষ হয়ে আসছে আর স্টিল প্লান্টগুলো ঠিকই চলছে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

মাউন্ট এভারেস্টে করোনার হানা!

অনলাইন ডেস্ক

মাউন্ট এভারেস্টে করোনার হানা!

করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত পুরো বিশ্ব। বিশ্বের প্রতিটি দেশে এর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জনজীবন, জীবনমান, অর্থনীতি। সেক্ষেত্রে বলাই যায়, করোনা ভাইরাস পৌঁছে গেছে সবজায়গাতেই। তবে এবার এই কথা আক্ষরিকভাবেই প্রমাণ করে করোনাভাইরাসের দেখা মিলল বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে।

সম্প্রতি এভারেস্টে যাওয়া এক অভিযাত্রী আক্রান্ত হয়েছেন করোনাভাইরাসে। ভ্রমণ ম্যাগাজিন দ্য আউটসাইডের এক প্রতিবেদনে জানায়, করোনায় আক্রান্ত অভিযাত্রী বেস ক্যাম্পে (১৭ হাজার ৬০০ ফুটেরও বেশি উচ্চতায়) ছিলেন।

তিনিসহ আরও দুই পর্বতারোহীর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে হেলিকপ্টারে করে তাদের সরিয়ে নেওয়া হয়। পরে তাদের একজনের করোনা শনাক্ত হয়।

এ বিষয়ে এভারেস্ট অভিযান অপারেটর মিংমা শেরপা বলেন, ওই ক্যাম্পের অন্যান্য অভিযাত্রীরা তাদের অভিযান বাতিল করবেন না। কেননা, বেসক্যাম্পে পৌঁছে রণে ভঙ্গ দেওয়া অর্থহীন।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

বেনজেমা ভেল্কিতে লা লিগার শীর্ষে রিয়াল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন


তবে পর্বতারোহণ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অন্যদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বলেছেন। এছাড়া ইতোমধ্যেই বেসক্যাম্পে একটি অস্থায়ী মেডিকেল ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৪ মার্চ সীমান্ত বন্ধসহ এভারেস্টে আরোহণে বিধি-নিষেধ জারি করে দেশটির সরকার। তবে এবছরের মার্চ মাসে এই বিধি-নিষেধ তুলে নেয় নেপাল।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

রাশিয়া থেকে ১০ মার্কিন কূটনীতিককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়া থেকে ১০ মার্কিন কূটনীতিককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

মস্কোয় নিযুক্ত মার্কিন উপ রাষ্ট্রদূত বার্ট গোরম্যানকে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করে দেশটিতে অবস্থানরত ১০ মার্কিন কূটনীতিককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে। আজকের (২২ এপ্রিল) মধ্যে এসব কূটনীতিককে রাশিয়া ত্যাগ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বুধবার এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, মার্কিন সরকার ওয়াশিংটনস্থ রুশ দূতাবাসের কয়েকজন কর্মীর পাশাপাশি নিউ ইয়র্কের রুশ কনস্যুলেট প্রধানকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করার পর পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।


আরও পড়ুনঃ


মাউন্ট এভারেস্টে করোনার হানা!

বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

বেনজেমা ভেল্কিতে লা লিগার শীর্ষে রিয়াল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন


এক সপ্তাহ আগেও যুক্তরাষ্ট্রের এক পদক্ষেপের জবাব দিতে ১০ মার্কিন কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছিল।

এর আগে হোয়াইট হাউজ গত বৃহস্পতিবার আমেরিকার নির্বাচনে কথিত হস্তক্ষেপ এবং দেশটিতে সাইবার হামলা চালানোর অভিযোগে রাশিয়ার ৩২ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ এবং ১০ রুশ কূটনীতিককে বহিষ্কার করে।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর

বাংলাদেশি প্রবেশে ওমানের নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশি প্রবেশে ওমানের নিষেধাজ্ঞা

পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত বাংলাদেশের প্রবাসীদের ওমানে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দেশটির করোনাভাইরাস প্রতিরোধে গঠিত সুপ্রিম কমিটি। বাংলাদেশ ছাড়া ভারত-পাকিস্তানও এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় রয়েছে ।

বুধবার ওমানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হাম্মুদ বিন ফয়সাল আল বুসাইদির নেতৃত্বে করোনা সংক্রমণ বিস্তার রোধে সুপ্রিম কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এতে বলা হয়, আগামী ২৪ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টার পর থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত ওমানে বাংলাদেশি, ভারতীয় ও পাকিস্তানি নাগরিকদের প্রবেশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।


আরও পড়ুনঃ


বাঙ্গি: বিনা দোষে রোষের শিকার যে ফল

'টিকায় কিছু হবে না, লাভ যা হওয়ার মদেই হবে'

বেনজেমা ভেল্কিতে লা লিগার শীর্ষে রিয়াল

৫৩ জন নাবিকসহ নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার সাবমেরিন


এছাড়া, অন্য কোনো দেশ থেকে ওমানে প্রবেশের আবেদন করার ১৪ দিনের মধ্যে যদি কেউ বাংলাদেশ, ভারত বা পাকিস্তানে ভ্রমণ করে থাকেন তবে তারাও দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

news24bd.tv / নকিব

মন্তব্য

পরবর্তী খবর