বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৫ মিনিট আগে

হুয়েস্কার জালে বার্সার দুই হালি

সাহিদ রহমান অরিন

হুয়েস্কার জালে বার্সার দুই হালি

৭৩ হাজার দর্শক আসন পেতে বসতে না বসতেই স্তব্ধ ন্যু ক্যাম্প।লাল-নীল সিটগুলো গরম হবার আগেই কেঁপে উঠলো বার্সার জাল!কাতালানদের ডেরায় খেলতে এসে তাদেরই সাথে ‘মাস্তানি’?পুঁচকে হুয়েস্কার এই ‘আকস্মিক অপমান’ বোধহয় সহ্য হয়নি মেসি-সুয়ারেজ-র‌্যাকিটিচদের।আর তাই একটুখানি সময় নিয়েই তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠলেন।গুণে গুণে নবাগতদের জালে ৮বার বল পাঠালেন এর্নেস্তো ভালভার্দের সেনারা।

ম্যাচের ৩ মিনিটেই সফরকারীদের এগিয়ে দিয়েছিলেন চুচো হার্নান্দেজ। এরপর প্রথমার্ধে আরও এক গোল করে ফেলেছিল প্রথমবার লা লিগায় উঠে আসা হুয়েস্কা।কিন্তু লিওনেল মেসি আর লুইস সুয়ারেজরা যেদিন রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন, সেদিন কি আর হুয়েস্কা বার্সাকে হুইস্কি খাইয়ে মাতাল বানাতে পারে?

পারে না বলেই অতিথিদের দুই হালি গোল আপ্যায়ন করিয়ে ছেড়েছে লা লিগার শিরোপাধারীরা। পুরো ম্যাচে গোল হলো দশ-দশটি। যার ৮টিই বার্সার। নির্ধারিত সময় শেষে ফল, বার্সা ৮-২ হুয়েস্কা!

শুরুতেই গোল হজম করে ক্ষুধার্ত বাঘের ন্যায় গর্জে ওঠে বার্সা। ১৬ মিনিটেই কাতালানদের সমতায় ফেরান অধিনায়ক মেসি। এরপর ২৪ মিনিটে নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন হুয়েস্কার হোর্হে পুলিদো। ৩৯ মিনিটে ব্যবধান ৩-১ করে ফেলেন লুইস সুয়ারেজ।বিরতিতে যাবার আগে ব্যবধান কমিয়ে আনেন হুয়েস্কার অ্যালেক্স গ্যালার। 

প্রথমার্ধের ন্যায় দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটেও গোল!এবার আর হুয়েস্কা নয়,সুয়েরাজের অ্যাসিস্টে গোল করে বার্সার দুই হালির প্রথমটা পূরণ করেন ওসমান ডেম্বেলে।স্বাগতিকদের গোল উৎসবের শুরু মূলত সেখান থেকেই।

এরপর ৫২ মিনিটে নিজের প্রথম এবং দলের হয়ে পঞ্চম গোল করেন বিশ্বকাপ মাতানো ইভান র‌্যাকিটিচ।৯মিনিট বাদে মেসির আরেক গোল।ঠিক কুড়ি মিনিট পর সপ্তমবারের মতো নবাগতদের জাল কাঁপান ডিফেন্ডার জর্ডি আলবা।হুয়েস্কার ক্ষত-বিক্ষত রক্ষণভাগের তখন ‘ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি’ অবস্থা।

কিন্তু ‘অতিথি আপ্যায়ন’ যে তখনো বাকি! অতিরিক্ত সময়ে পেনাল্টি পায় বার্সেলোনা।স্পট কিক নিতে পারতেন মেসি।তাতে নিজের হ্যাটট্রিকটাও পূরণ হতো।কিন্তু বার্সা প্রাণভোমরা তা না করে সামনে ঠেলে দিলেন সুয়ারেজকে। দেখালেন দারুণ এক মহানুভবতা। 

নিখুঁত স্পট কিক নিলেন উরুগুয়েন তারকা।যোগ করা সময়ে হুয়েস্কার কফিনে শেষ পেরেক।দুই হালি পূরণ করেই ছাড়লো ভালভার্দের ‘নাছোড়বান্দা’ ছাত্ররা। মন মাতানো ১০ গোলের ম্যাচ দেখে পরিতৃপ্তি নিয়ে ন্যু ক্যাম্প ছাড়লো শুরুতে নির্বাক বনে যাওয়া ৭৩ হাজার দর্শক।

মৌসুমের সর্ববৃহৎ এই জয়ে ৩ ম্যাচ শেষে শীর্ষে রইলো বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তাদের অর্জন ৯ পয়েন্ট। সমান পয়েন্ট চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়ালেরও। তবে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে রয়েছে মাদ্রিদ জায়ান্টরা। 


সূত্র: ইএসপিএন এফসি, ফুটমব 

অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর

মন্তব্য