দুবাইয়ে যেসব এলাকায় কম খরচে থাকা যায়
দুবাইয়ে যেসব এলাকায় কম খরচে থাকা যায়

দুবাইয়ে যেসব এলাকায় কম খরচে থাকা যায়

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বের অন্যতম ব্যয়বহুল শহর দুবাই। কয়েক বছর ধরে সেখানে হু হু করে বাড়ছে বাড়িভাড়া। এরপরও চাহিদার কমতি নেই। এই ধারা অব্যাহত রেখে ২০২৩ সালেও শহরটিতে শক্তিশালী অর্থনৈতিক কার্যকলাপের কারণে আবাসন খাত চাঙ্গা থাকবে বলে আশা করা হচ্ছে।

জুম প্রপার্টির তথ্যমতে, ২০২২ সালে দুবাইয়ে একেকটি বাগানবাড়ির গড় ভাড়া ২ লাখ ৬৮ হাজার দিরহাম ছাড়িয়েছে। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় ৭৭ লাখ টাকা। এছাড়া, অ্যাপার্টমেন্টের গড় ভাড়া বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ৯০ হাজার দিরহাম (২৫ লাখ ৮৮ হাজার টাকা প্রায়)।

এই ধারা ২০২৩ সালেও অব্যাহত থাকবে বলে মনে করছে আমিরাতভিত্তিক সম্পত্তি বিষয়ক সংস্থাটি।

জুম প্রোপার্টির প্রধান নির্বাহী আতা শোবেরির মতে, প্রবাসীদের উচ্চহারে দুবাইমুখী হওয়ার কারণেই মূলত শহরটিতে বাড়িভাড়া বাড়ছে।

তিনি বলেন, কর্মসংস্থান ও ব্যবসা খোঁজার পাশাপাশি বিলাসী জীবনযাপনের জন্য মানুষের দুবাইমুখী হওয়ার সংখ্যা প্রতিদিনই বাড়ছে। এর ফলে ভাড়াবাড়ির চাহিদা এবং গড় ভাড়া বেড়েছে। তবু, এমন কিছু এলাকা রয়েছে যেখানে ভাড়াটেরা সাশ্রয়ী মূল্যে আবাসন খুঁজে পেতে পারেন।

জুম প্রপার্টির হিসাব অনুসারে, ইন্টারন্যাশনাল সিটি হলো দুবাইতে বাড়ি ভাড়া নেওয়ার সবচেয়ে সাশ্রয়ী জায়গা। যেখানে বার্ষিক গড় ভাড়া ১৯ হাজার থেকে ৫৫ হাজার দিরহামের মধ্যে।

দুবাই সিলিকন ওয়েসিস হলো ভাড়াটেদের জন্য আরেকটি সাশ্রয়ী এলাকা। সেখানে স্টুডিওর গড় ভাড়া ২৫ হাজার থেকে ৫২ হাজার দিরহাম এবং এক বেডরুম অ্যাপার্টমেন্টের গড় ভাড়া ৩২ হাজার থেকে ৬৮ হাজার দিরহাম।

কম খরচে থাকতে চাওয়া লোকদের জন্য আরেকটি পছন্দের জায়গা হতে পারে বুর দুবাই। সেখানে স্টুডিওর গড় ভাড়া ২০ হাজার থেকে ৬০ হাজার দিরহাম এবং এক বেডরুম অ্যাপার্টমেন্টের গড় ভাড়া ৩০ হাজার দিরহামের মতো।

news24bd.tv/কামরুল

এই রকম আরও টপিক