মোদিকে নিয়ে বিবিসির তথ্যচিত্র বন্ধে ইউটিউব-টুইটারকে নির্দেশ
মোদিকে নিয়ে বিবিসির তথ্যচিত্র বন্ধে ইউটিউব-টুইটারকে নির্দেশ

সংগৃহীত ছবি

মোদিকে নিয়ে বিবিসির তথ্যচিত্র বন্ধে ইউটিউব-টুইটারকে নির্দেশ

গুজরাট দাঙ্গা ও নরেন্দ্র মোদির ভূমিকা নিয়ে ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং করপোরেশনের (বিবিসি) তৈরি তথ্যচিত্রটির প্রচার বন্ধ করতে (ব্লক) ইউটিউবকে নির্দেশ দিয়েছে ভারত সরকার। কাতার ভিত্তিক গণমাধ্যম আল-জাজিরা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

এছাড়া ভারত সরকার এ সম্পর্কিত অন্তত ৫০টি টুইট, যেখানে ওই তথ্যচিত্রের ‘লিংক’ দেওয়া হয়েছে; সেগুলোও টুইটারকে ব্লক করতে বলেছে। ভবিষ্যতেও যদি কেউ এমন কাজ করে, সে ক্ষেত্রেও তা মুছে দেওয়ার নির্দেশ ইউটিউব ও টুইটারকে দেওয়া হয়েছে।

‘ইন্ডিয়া: দ্য মোদি কোশ্চেন’ নামের ওই তথ্যচিত্র বিজেপি ও গুজরাটের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী ও বর্তমানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভূমিকা তুলে ধরেছে, যা নিয়ে যুক্তরাজ্য ও ভারতে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে।

বিবিসির এ তথ্যচিত্রকে প্রোপাগান্ডা বলে অখ্যায়িত করেছে ভারতের ক্ষমতাসীন পার্টি বিজেপি।

ভারতের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র উপদেষ্টা কাঞ্চন গুপ্ত জানিয়েছেন, মোদিকে নিয়ে প্রচারিত বিবিসির প্রথম পর্ব ইউটিউব থেকে সরিয়ে ফেলতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়া টুইটারে এ নিয়ে প্রায় ৫০টি লিঙ্ক শেয়ার করা হয়েছে।

এগুলোও সরিয়ে ফেলতে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। গত শনিবার এক টুইট বার্তায় তিনি একথা জানান।  

তিনি বলেন, আইটি আইনের ধারা ২০২১ অনুযায়ী এসব লিঙ্ক সরিয়ে ফেলার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

ওই তথ্যচিত্র সম্পর্কে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকা যেভাবে তুলে ধরা হয়েছে, তার সঙ্গে তিনি সহমত নন। বিবিসি ওই তথ্যচিত্র ভারতে সম্প্রচার করেনি। তথ্যচিত্রটির দ্বিতীয় ভাগ সম্প্রচারিত হবে ২৪ জানুয়ারি।

সূত্র : আল-জাজিরা।

news24bd.tv/ইস্রাফিল