শনিবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ৫৩ মিনিট আগে

লিবিয়ায় নৌ দুর্ঘটনায় শতাধিক নিহত

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

লিবিয়ায় নৌ দুর্ঘটনায় শতাধিক নিহত

ভূমধ্যসাগরের লিবিয়া উপকূলে এক নৌ দুর্ঘটনায় ২০ শিশুসহ শতাধিক নিহত হয়েছে।ঘটনাটি চলতি মাসের প্রথম দিনে ঘটলেও সাহায্য সংস্থা মেডিসিনস স্যান্স ফ্রন্টিয়ার্সের (এমএসএফ) বরাত দিয়ে আজ (১১ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার) জানিয়েছে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম। 

এক বিবৃতিতে এমএসএফ জানায়, ওই দুর্ঘটনায় শতাধিক নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৭ মাস বয়সী যমজ শিশুও রয়েছে। তবে সংস্থাটি নিহতদের নির্দিষ্ট কোনো সংখ্যা উল্লেখ করেনি। দুর্ঘটনার পর সাগর থেকে কতজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে, সে ব্যাপারেও কিছু বলেনি এমএসএফ।এই সাহায্য সংস্থাটি ডক্টরর্স উইদাউট বর্ডার্স নামেও পরিচিত।

এমএসএফ বলছে, ১ সেপ্টেম্বর সকালে দু’টি রাবারের নৌকায় করে লিবিয়া উপকূল থেকে যাত্রা শুরু করেছিলো অভিবাসীরা।দু’টি নৌকাতেই ধারণ ক্ষমতার অধিক যাত্রী ছিল। যাত্রা শুরুর কিছুক্ষণ পর ইঞ্জিন বিকল হওয়ার কারণে একটি নৌকা থেমে যায়। তবে যাত্রা অব্যাহত রাখে অন্য নৌকাটি।

এক প্রত্যক্ষদর্শী এমএসএফকে জানান, ‘ইঞ্জিন বিকল হওয়ার কারণে প্রথম নৌকাটি থেমে গেলেও দ্বিতীয় নৌকাটির যাত্রা অব্যাহত থাকে। কিন্তু দুপুর ১টার দিকে চলন্ত নৌকাটি সাগরে ডুবে যায়।’

এ সময় কয়েকজন যাত্রী বিধ্বস্ত নৌকার ভাঙাচোরা অংশ ধরে ভেসে থাকেন। পরদিন (২ সেপ্টেম্বর) ভেসে থাকাদের উদ্ধার করে লিবিয়ার উপকূলীয় রক্ষীরা। উদ্ধারের পর তাদের লিবিয়ার খোমস বন্দরে নিয়ে আসা হয়।

নিহতদের বেশিরভাগই সুদান, মালি, নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, ঘানা, লিবিয়া, আলজেরিয়া ও মিশরের নাগরিক ছিল বলে জানিয়েছে লিবিয়ার উপকূলীয় রক্ষীবাহিনী।ডুবে যাওয়া নৌকাটিতে ২০ শিশুসহ সব মিলিয়ে ১৮৫ জন যাত্রী ছিল বলে দাবি তাদের। 

বেঁচে যাওয়া যাত্রীদের একজন জানান, নৌকার বেশিরভাগ যাত্রীই সাঁতার জানতো না এবং তাদের অল্প কয়েকজনের কাছে লাইফ জ্যাকেট ছিল।

উন্নত জীবনের আশায় আফ্রিকা অঞ্চলের অনুন্নত ও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশগুলোর লোকজন প্রায়ই ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে থাকে। তারা প্রথমে ইতালিতে আসে এবং পরে ইউরোপের অন্যান্য দেশে ছড়িয়ে পড়ে। নৌকায় করে বেপোরোয়াভাবে সাগর পাড়ি দেয়ার সময় অনেকের সলিল সমাধি হয়ে থাকে। তারপরও বন্ধ হচ্ছে না অসহায় ও দরিদ্র মানুষগুলোর ইউরোপ গমনের এই প্রচেষ্টা।

জাতিসংঘের হিসাব মতে, চলতি বছরের ১ জুলাই পর্যন্ত সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে মারা গেছে কমপক্ষে ১ হাজার মানুষ। ২০১৭ সালে এ ধরনের ঘটনায় নিহত বা নিখোঁজ হয়েছিলো ৩ হাজারের বেশি মানুষ।



সূত্র: ইনফো মাইগ্রেন্টস, আল জাজিরা

অরিন▐ NEWS24

 

মন্তব্য