প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে ‘এলিট প্যানেলে’ সালমা 

সংগৃহীত ছবি

প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে ‘এলিট প্যানেলে’ সালমা 

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশের প্রথম নারী রেফারি হিসেবে এএফসির এলিট প্যানেলে জায়গা পেয়েছেন সালমা ইসলাম মনি। ২০২১ সালে ফিফা সহকারী রেফারির ব্যাজ পেয়েছিলেন সালমা আক্তার মনি। দুই বছরের মধ্যে এএফসির এলিট প্যানেলেও ঢুকে পড়লেন তিনি। গতকাল সোমবার এএফসি থেকে চিঠি পেয়েছেন ২৫ বছর বয়সী এই নারী রেফারি।

এ বছরের ১৫ থেকে ১৯ জানুয়ারি মালয়েশিয়ায় গিয়ে ‘এএফসি এলিট প্যানেল রিক্রুটমেন্ট’ পরীক্ষা দিয়েছিলেন সালমা। ফিফার তালিকাভুক্ত রেফারিরা এই পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ পান। টিকে গেলে এক বছর এলিট রেফারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এবার তার সঙ্গে ফিফা রেফারি জয়া চাকমাও পরীক্ষা দিয়েছিলেন।

তবে তিনি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে পারেননি।

২০২১ সাল থেকেই এএফসির এলিট প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হতে পরীক্ষা দিয়ে যাচ্ছিলেন সালমা। ওই বছর দুইবার পরীক্ষা দিয়েও উত্তীর্ণ হতে পারেননি তিনি। এবার সেই বাঁধা পেরোলেন সালমান। প্রথম বাংলাদেশি নারী রেফারি হিসেবে এলিট প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হতে পেরে স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত নেত্রকোনার এই মেয়ে। পাশাপাশি কিছুটা চাপও অনুভব করছেন তিনি।

সালমা বলেছেন, ‘আজ বিকেল ৩টার দিকে রেজাল্ট পেলাম। খুবই ভালো লাগছে। কিন্তু অনেক চাপও বেড়েছে। কারণ এটা অর্জনের চেয়ে ধরে রাখা কঠিন। এ বছরের নভেম্বরে একটা কোর্স আছে, সেটা করতে হবে। একটা ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে চাকরির পাশাপাশি রেফারিং করি। এ জন্য আমাকে প্রচণ্ড পরিশ্রম করতে হয়। ’

এলিট প্যানেলের তালিকাভুক্ত না হওয়ায় দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে ম্যাচ পেতেন না সালমা। এখন শুধু সাফই নয়, এএফসির বিভিন্ন টুর্নামেন্টেও সহকারী হিসেবে ম্যাচ পাবেন তিনি। তাতে বেশ রোমাঞ্চিত সালমা, ‘সবাই ফিফার পরে এএফসির এলিট প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হতে চায়। এলিটে না থাকলে সাফের বাইরের ম্যাচ পাওয়া যায় না। এএফসির টুর্নামেন্টগুলোতে ম্যাচ পেলে নতুন অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারব। অনেক নতুন নতুন বিষয় শিখতে ও জানতে পারব। ’

বয়সভিত্তিক ও জাতীয় দল মিলিয়ে ১০টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে সহকারী রেফারি হিসেবে ছিলেন সালমা। ২০২১ সালে গড়েছিলেন নতুন ইতিহাস। ছেলেদের প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলে বাংলাদেশের প্রথম নারী হিসেবে সহকারী রেফারির দায়িত্ব পালন করেন সালমা।

এএফসি এলিট প্যানেলে বাংলাদেশের সর্বশেষ রেফারি ছিলেন তৈয়ব হাসান শামসুজ্জামান। ২০১৬ সালে তার অবসরের পর এলিট প্যানেলে রেফারি হিসেবে বাংলাদেশের আর কেউ জায়গা করে নিতে পারেননি। তবে এলিট প্যানেলে সহকারী হিসেবে আছেন বাংলাদেশের পুরুষ রেফারি মনির ঢালী।

news24bd.tv/সাব্বির

সম্পর্কিত খবর

পাঠকপ্রিয়