সৌর বিদ্যুতের দিকে ঝুঁকছে সরকার

সংগৃহীত ছবি

সৌর বিদ্যুতের দিকে ঝুঁকছে সরকার

ফেরদৌস আরেফিন

সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনে ১৮ বছর মেয়াদি রোডম্যাপ করতে যাচ্ছে সরকার। সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ২০২৩ থেকে ২০৪১ সাল পর্যন্ত। এ সময়ের মধ্যে মোট বিদ্যুৎ উৎপাদনের ৪০ শতাংশ সৌরবিদ্যুতে উন্নীত করার পরিকল্পনা রয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর একটি হোটেলে ইন্টারন্যাশনাল সোলার এলায়েন্স-আইএসএ’র সঙ্গে কান্ট্রি পার্টনারশিপ এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষরের সময় এ তথ্য জানায় বিদ্যুৎ বিভাগ।

 

বিদ্যুৎ বিভাগের হিসাবে, প্রায় ৯০০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ গ্রিডে সরবরাহ হচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে অন্তত সাড়ে চার হাজার মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ গ্রিডে দিতে চায় সরকার। এ ক্ষেত্রে জমির স্বল্পতার কারণে জোর দেওয়া হচ্ছে উন্নত ও উদ্ভাবনী প্রযুক্তি ব্যবহারের দিকে।

রাজধানীর একটি হোটেলে ইন্টারন্যাশনাল সোলার এলায়েন্স-আইএসএ’এর সঙ্গে আন্তঃদেশীয় অংশদারিত্ব চুক্তি করে বিদ্যুৎ বিভাগ।

এতে প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে সৌরবিদ্যুতের প্রসারে সহযোগিতার ক্ষেত্র তৈরি হবে। অনুষ্ঠানে ভাচুয়ালি যুক্ত হয়ে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী জানান, সৌরবিদ্যুতের জন্য একটি রোডম্যাপ তৈরি করা হয়েছে।  

আইএসএ মহাপরিচালক বলেন, কোনো বড় প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে নকশা প্রণয়ন এবং দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়ন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আইএসএ বাংলাদেশকে এ ক্ষেত্রে সহায়তা করবে।

আইএসএ-এর সঙ্গে চুক্তির আওতায় সোলার রোডম্যাপ তৈরিতে সহযোগিতা ছাড়াও বাংলাদেশ রাইস রিসার্চ ইনস্টিটিউটকে সৌর বিদ্যুৎচালিত সেচ, ধান মাড়াই ও পানি সরবরাহের যন্ত্র দেওয়ার পরিকল্পনা আছে। প্রাথমিকভাবে এই চুক্তিটির মেয়াদ ২০২৬ সাল পর্যন্ত।

news24bd.tv/ইস্রাফিল

পাঠকপ্রিয়