২৬ জুন , বুধবার, ২০১৯

শিরোনাম

> অফবিট

 

শাকিলা ইসলাম জুঁই • সাতক্ষীরা প্রতিনিধি 

১৮ সেপ্টেম্বর ,মঙ্গলবার, ২০১৮ ২১:৩৯:৪৫

ময়মনসিংহের মেয়ে অনশন করছে সাতক্ষীরায়!


ময়মনসিংহের মেয়ে অনশন করছে সাতক্ষীরায়!

সন্তানকে কোলে নিয়ে বাড়ির আঙিনায় অনশনরত গৃহবধূ সালমা খাতুন


‘রাতভর মশা কামড়িয়েছে। শিশুটিরও শুরু হয়েছে পাতলা পায়খানা। এমন অমানবিক অবস্থায় সম্পূর্ণ নিরাপত্তাহীনতায় ফেলে রেখেছে আমাকে। রাতে আমাকে গলা টিপে হত্যার চেষ্টাও করা হয়েছে। টেনে-হেঁচড়ে বাইরে ঠেলে দেওয়ার চেষ্টাও করেছে’- মনের কষ্টগুলো এভাবেই তুলে ধরলেন গৃহবধূ সালমা খাতুন।

আজ (১৮ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার) সন্ধ্যা পর্যন্ত  প্রায় ৩৬ ঘণ্টা ধরে বিরতিহীন অনশনে ছিলেন সালমা। ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার উপজেলার মহিষতাড়া গ্রামের শেখ জামাল হোসেনের মেয়ে তিনি। ২০১২ সালে ফেসবুকে পরিচয়ের সূত্র ধরে সাতক্ষীরার সুলতানপুরের দুলাল হাসানের ছেলে অমিত হাসান ফাহাদের সঙ্গে তার বিয়ে হয়।তবে ২০১৭ সালে সংসার ফেলে চলে যান ফহাদ।  

সালমা বলেন, ‘শ্বশুর বাড়ির লোকজন এতো নিষ্ঠুর, এতো নির্মম- যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। আমি একটা মেয়ে।তবুও আমার নিরাপত্তার বিষয়কে তারা গুরুত্ব দিচ্ছে না। আমার এই দুঃসময়ে পুলিশ শুধু দেখে গেছে, কিন্তু নিরাপত্তার কোনো ব্যবস্থা করেনি, স্বামীর ঘরে উঠতেও সাহায্য করেনি। এখন আমি মানবেতর জীবন যাপন করছি। আমার চারদিকে তালাবদ্ধ। সেখানে একটি বাথরুমও নেই। সিঁড়ির নিচে কী করে থাকবো?’ 

তিনি জানান, ২০১২ সালের ১৪ জুলাই ময়মনসিংহে ফহাদের সাথে তার বিয়ে হয়।এর মধ্যে তাদের ঘরে আসে মেয়ে অবন্তী হাসান ফারিয়া। কিন্তু ২০১৭ সালে স্বামী ফহাদ তাকে ও শিশু কন্যাকে ফেলে চলে যায়। এরপর থেকে আর কোনো যোগাযোগ নেই, এমনকি কোনো খোঁজখবরও নেয় না। উপায় না পেয়ে স্বামীর বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন বলে জানালেন সালমা। 

সালমা খাতুন আরও জানান, অনেক চেষ্টার পর অবশেষে তিনি তার কন্যা সন্তানকে নিয়ে ফহাদের সাতক্ষীরার বাড়িতে ধর্ণা দেন। সোমবার দুপুর ২টা থেকে রাত পার হয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি সেখানেই ছিলেন। 

সালমা বলেন, ‘অপ্রাপ্ত বয়সে বিয়ের পর আমার ও আমার স্বামীর কিছুদিনের জন্য জেল হয়। প্রাপ্ত বয়স্ক হয়ে উঠলে আমরা আইনি বাধা কাটিয়ে উঠি। কিন্তু এতে বাধ সাধেন আমার শাশুড়ি আকলিমা খাতুন।’ 

‘অবশেষে গেল ১২ আগস্ট শাশুড়ি আকলিমা সব মেনে নিয়েছেন বলে আমাকে জানান এবং আমাকে সাতক্ষীরায় চলে আসতে বলেন। এখন বুঝছি তিনি মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে আমাকে ডেকে এনেছেন।’ 

অসহায় এই গৃহবধূ জানান, তিনি গেল ৬ সেপ্টেম্বর সাতক্ষীরায় পৌঁছলে শাশুড়ি আকলিমা তাকে একটি ভাড়া বাসায় রেখে দেন। এরপর কয়েকদিন আগে থেকে তাকে ভাড়া বাসা থেকে তাড়িয়ে দেন আকলিমা।নিরুপায় হয়ে তিনি শ্বশুর বাড়ির দরজায় এসে অনশন শুরু করেছেন। 

তিনি জানান, তার মেয়ে ফারিয়ার ডিএনএ টেস্ট হয়েছে। প্রমাণ হয়েছে সে ফহাদের সন্তান। তার কাছে বিয়ের কোনো দালিলিক কাগজপত্র নেই। সব কিছু রয়েছে ফহাদ ও ম্যারেজ রেজিস্ট্রারের কাছে। এ অবস্থায় তিনি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবেন, সেই প্রশ্ন সালমা খাতুনের।

বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইল আকলিমা খাতুন বলেন, ‘আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর তার ছেলের মামলার দিন। এ মামলার বাদী সালমা খাতুন নিজেই। আমি বলেছি ওইদিন তাকে জেল থেকে জামিনে আনতে পারলে ফহাদের ইচ্ছে অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সালমা যে আমার ছেলের বউ, এমন কোনো প্রমাণ সে দেখাতে পারেনি।’

সাতক্ষীরা সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেন জানান, ‘সালমাকে ওই বাড়িতে ২৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাখার অনুরোধ জানিয়েছি। তারপর ফহাদ বাড়ি এলে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে।’

তবে এসআইয়ের অনুরোধ রাখে নি ফহাদের পরিবার।সালমাকে বাড়ির ভিতরে না রেখে প্রাচীর ঘেরা খোলা আঙিনায় রাখা হয়েছে। 


শাকিলা▐ অরিন▐ NEWS24


ক্র্যাচে ভর দিয়ে হাঁটতে হচ্ছে মাহমুদুল্লাহকে
'ক্রিকেটারদের আরো সুযোগ-সুবিধা দেয়া হবে'
ফিঞ্চের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ২৮৫
টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে ইংল্যান্ড
নড়বড়ে ও পুরনো সেতুগুলো দ্রুত মেরামতের নির্দেশ
ভারতে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত ৬
বিশ্বকাপে সেরা অলরাউন্ডার সাকিব
টেকনাফে মানবপাচার মামলার তিন আসামি 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত 
সাকিবের নৈপুণ্যে টাইগারদের দাপুটে জয়
'দেশের মানুষ কষ্ট পেলে বাবার আত্মা কষ্ট পাবে'
আফগানিস্তানের বিপক্ষে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়েছে টাইগাররা
বিশ্বকাপে সাকিবের ১ হাজার রান পূর্ণ 
আফগানদের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ
বিএনপির কার্যালয়ের পাশে পাঁচটি ককটেল বিস্ফোরণ
'মানুষের জীবন নিয়ে কেউ যেন ছিনিমিনি খেলতে না পারে'
কলকাতায় শুটিংয়ে ব্যস্ত বাংলাদেশের শিল্পীরা
নিবন্ধন ও ফিটনেসবিহীন গাড়ির মালিকদের তথ্য চায় হাইকোর্ট
'বিকেলের মধ্যে উদ্ধার কাজ শেষ হবে'
সুবর্ণচরে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে জলদস্যু নিহত
সিলেটের সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগও বন্ধ
ক্র্যাচে ভর দিয়ে হাঁটতে হচ্ছে মাহমুদুল্লাহকে
পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু 
পীরগাছায় বজ্রপাতে শিক্ষার্থী নিহত
যুবলীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১
মটরসাইকেল ও এ্যাম্বুলেন্সের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২
অস্ত্র মামলায় সাজাপ্রাপ্ত কয়েদির মৃত্যু
'ক্রিকেটারদের আরো সুযোগ-সুবিধা দেয়া হবে'
এফআর টাওয়ার নির্মাণে দুর্নীতির অভিযোগে মামলা
ফিঞ্চের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ২৮৫
ট্রেন দুর্ঘটনায় স্টেশন মাস্টারকে ঢাকায় তলব
টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে ইংল্যান্ড
ঝিনাইদহে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার
পরিবারকে সময় দিতে ছুটিতে সাকিব 
ছাত্রদলের দুপক্ষে মারামারি, আহত ১০
নড়বড়ে ও পুরনো সেতুগুলো দ্রুত মেরামতের নির্দেশ
ভারতে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত ৬
বিশ্বকাপে সেরা অলরাউন্ডার সাকিব
বগুড়া-৬ আসনে জয় পেলেন বিএনপির সিরাজ
টেকনাফে মানবপাচার মামলার তিন আসামি 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত 
সাকিবের নৈপুণ্যে টাইগারদের দাপুটে জয়
যেভাবে উদ্ধার সোহেল তাজের ভাগ্নে সৌরভ
এইচআইভিতে আক্রান্ত ৪৬ জনকে শনাক্ত
রোগী দেখে ফেরার পথে লাশ হলেন চিকিৎসক
বিএনপির কার্যালয়ের পাশে পাঁচটি ককটেল বিস্ফোরণ
মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করল ইরান
লিটনের আউট নিয়ে বিতর্কে ঝড়
ঘুমন্ত ছোট ভাইকে হত্যা করল বড় ভাই
ঢাবি ছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ১
ফরিদপুরে এক বছর ধরে কাজের মেয়েকে ধর্ষণ
কাল ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে 
বাংলাদেশকে ৩৮২ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া
বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে যা বলছে!
শতরানের জুটি গড়ে ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ
পরিবারকে সময় দিতে ছুটিতে সাকিব 
ইরানকে এস-৪০০ নিতে বলল রাশিয়া
কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন
ভারতকে মাটিতে নামাল আফগানরা 
ডিআইজি মিজানের সম্পদ ক্রোক ও হিসাব জব্দ
সংসদে ৩০০ ঋণ খেলাপির তালিকা প্রকাশ
কলাগাছ ও সবজি ক্ষেতের সাথে শত্রুতা

সব খবর