রাশিয়ার ‘হুমকি’ মোকাবেলায় চার নরডিক দেশের সমঝোতা
রাশিয়ার ‘হুমকি’ মোকাবেলায় চার নরডিক দেশের সমঝোতা

সংগৃহীত ছবি

রাশিয়ার ‘হুমকি’ মোকাবেলায় চার নরডিক দেশের সমঝোতা

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়ার ক্রমবর্ধমান হুমকি মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ নরডিক আকাশ প্রতিরক্ষা গড়ে তুলতে সমঝোতা সমঝোতা স্বাক্ষর করেছে সুইডেন, নরওয়ে, ফিনল্যান্ড এবং ডেনমার্ক। গত শুক্রবার এ চার নরডিক দেশের সশস্ত্র বাহিনীর দেওয়া বিবৃতি থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

রয়টার্সকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ড্যানিশ বিমানবাহিনীর মেজর জেনারেল জ্যান ড্যাম বলেন, গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনে চলমান রুশ অভিযানকে কেন্দ্র করে চার দেশের বিমানবাহিনীকে ঐক্যবদ্ধ করার পদক্ষেপ নেওয়া হয়। তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের সমন্বিত বাহিনীকে বড় একটি ইউরোপীয় দেশের সঙ্গে তুলনা করা যায়।

নরওয়ের কাছে ৫৭টি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান এবং ৩৭টি এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান আছে। এ ছাড়া আরও ১৫টি এফ-৩৫ যুদ্ধ বিমান কিনছে তারা। ফিনল্যান্ডের কাছে ৬২টি এফ/এ-১৮ হরনেট যুদ্ধ বিমান আছে। আরও ৬৪টি এফ-৩৫ যুদ্ধ বিমান কিনছে তারা।

ডেনমার্কের কাছে আছে ৫৮টি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান। দেশটি আরও ২৭টি এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান কিনছে। সুইডেনের কাছে আছে ৯০টির বেশি গ্রিপেন যুদ্ধবিমান।  তবে এসব যুদ্ধবিমানের মধ্যে কতগুলো সচল আছে, তা স্পষ্ট করে জানা যায়নি।

গত সপ্তাহে জার্মানিতে রামস্টেইন বিমানঘাঁটিতে সুইডেন, নরওয়ে, ফিনল্যান্ড এবং ডেনমার্কের বিমানবাহিনীর মধ্যে সমঝোতা পত্র স্বাক্ষর হয়। ন্যাটো এয়ার কমান্ডের প্রধান জেনারেল জেমস হেকার সমঝোতা স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। ওই অঞ্চলে মার্কিন বিমানবাহিনীরও তদারকি করেন তিনি।

গত বছর সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার আবেদন করেছে সুইডেন ও ফিনল্যান্ড। তবে তুরস্ক ও হাঙ্গেরির কারণে তা ঝুলে আছে। তুরস্ক ও হাঙ্গেরি এখনো সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের সদস্য পদ অনুমোদন করেনি।  

নরডিক বিমানবাহিনীর কমান্ডারেরা গত নভেম্বরে সুইডেনে একটি বৈঠক করেন। সেখানে তারা নিবিড় সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করেছিলেন।

news24bd/ARH