বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ২২ মিনিট আগে

যোগে বিয়োগ চিবুকের মেদ

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

যোগে বিয়োগ চিবুকের মেদ

ওজন বাড়লে সবার আগে তার প্রভাব মুখেই এসে পড়ে। মুখ ভারী দেখায়, গাল ফুলে যায়, বিশেষ করে থুতনির কাছে মেদ জমে গিয়ে চিন ভারী হয়ে যায়। চেহারার সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়। সমস্যা হলো, খুব সহজে এই মেদ কমানো সম্ভব হয় না। মুখের এই অংশের মেদ কমাতে কিছু আলাদা যোগব্যায়াম রয়েছে। নিয়মিত করলে থুতনির নিচের মেদ কমতে পারে অল্প কয়েক দিনের মধ্যেই।

সেন্টার ফর ইয়োগা সায়েন্সের ইয়োগা প্রশিক্ষক শ্যামলী মণ্ডল বলেন, যোগব্যায়ামের মাধ্যমে ভারী চিনসহ শরীরের আরও অনেক সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। অনেকেই একবারে সব ব্যায়াম করতে পারেন না। এ ক্ষেত্রে একটু বেশি সময়ের প্রয়োজন হতে পারে।

 মকরাসন

উপুড় হয়ে শুয়ে লম্বা শ্বাস নিতে নিতে দুই হাত চোয়ালে রেখে হাতের কনুই জোড়া করে সামনের দিকে ঠেলে দেবেন। এবার শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে ঘাড় পেছনে বাঁকিয়ে দিতে হবে। এভাবে ৩০ সেকেন্ড থাকবেন।

২০ সেকেন্ড বিশ্রাম নেওয়ার সময় উপুড় হয়ে শুয়ে দুই হাতের ওপর কপাল রাখুন।

পাশাপাশি ঘাড় ঘোরানো

প্রথমে বসে লম্বা করে শ্বাস নিয়ে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে ডান দিকে ঘাড় ঘোরাতে হবে। এরপর শ্বাস নিতে নিতে ঘাড় সোজা করুন। ডান দিকের মতো একইভাবে বাঁ দিকে করতে হবে। প্রতি পাশে ১০ বার করে করতে হবে।

 ঘাড় পেছনে ও সামনে আনা

একইভাবে বসে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে ঘাড় পেছনে নিতে হবে। আবার সোজা হবেন শ্বাস নিতে নিতে। সামনের দিকেও পেছনের মতো করে করবেন। প্রতি পাশে ১০ বার করে করতে পারেন।

সতর্কতা: ঘাড়ব্যথা, মাথাব্যথা, উচ্চ রক্তচাপ থাকলে সামনের দিকে ঘাড় নামানো যাবে না।

 শশাঙ্গাসন

হাঁটু ভাঁজ করে বসুন। শ্বাস নিতে নিতে হাঁটুর ওপর দাঁড়াবেন। এবার দুই হাত দিয়ে গোড়ালি ধরে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে মাথার তালু মেঝেতে লাগানোর চেষ্টা করবেন। ৩০ সেকেন্ড থাকুন। ঘাড়, কোমরব্যথা ও উচ্চ রক্তচাপ থাকলে করা যাবে না। শ্বাস নিতে নিতে সোজা হবেন।

 পাশাপাশি ঘাড় বাঁকানো

চোখ সামনের দিকে রেখে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে ডান দিকে ঘাড় বাঁকাবেন। শ্বাস নিতে নিতে সোজা হবেন। বাঁ পাশও একইভাবে করতে পারবেন।

 ঘাড় ঘোরানো

ঘড়ির কাঁটার দিকে ও বিপরীতে ঘাড় ঘোরাতে হবে। ঘাড় যখন পেছনে থাকবে, তখন শ্বাস ছাড়বেন। ঘাড় সামনে থাকলে শ্বাস নিতে হবে। এভাবে দুদিকে ৫ বার করে করতে পারেন।

উষ্ট্রাসন

শশাঙ্গাসনের মতো করে বসে দুই হাত দিয়ে শ্বাস ছাড়তে ছাড়তে গোড়ালি ধরার চেষ্টা করুন। যদি না পারেন, তবে কোমরে হাত দেবেন। ৩০ সেকেন্ড থাকবেন। শ্বাস নিতে নিতে সোজা হবেন।


NEWS24▐ কামরুল

মন্তব্য