বিএনপি-জামায়াতকে উচিত শিক্ষা দিতে যুবলীগই যথেষ্ট: হানিফ

বিএনপি-জামায়াতকে উচিত শিক্ষা দিতে যুবলীগই যথেষ্ট: হানিফ

অনলাইন ডেস্ক

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বিএনপির বাংলাদেশের জনগণের ওপর ভরসা নাই। এই কারণে তারা ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জনগণের কাছে না গিয়ে বিদেশি প্রভুদের কাছে ধরনা ধরছে। যদি এ দেশের জনগণ বিএনপির সাথে থাকতো তাহলে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে থাকতে হতো না। তাদের নেতাকর্মীরা আন্দোলন-সংগ্রাম করে তাকে ছাড়িয়ে নিতো।

আজ শনিবার (১৩ মে) বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, অতীতে বিএনপি-জামাতের আন্দোলনকে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা যেভাবে প্রতিহত করে আগামী দিনেও বিএনপি নৈরাজ্য সৃষ্টি করলে তাদের সন্ত্রাসীদের উচিত শিক্ষা দেওয়ার জন্য যুবলীগই যথেষ্ঠ। এদেশের মানুষ কোনো অগ্নিসন্ত্রাসীদের ক্ষমতায় দেখতে চায় না।

সঞ্চালকের বক্তব্যে যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসীরা দেশের বিরুদ্ধে, মানুষের বিরুদ্ধে নানামুখী ষড়যন্ত্র করছে।

যারা সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, মাদক কারবারী তাদের নিয়ে তারা পল্টনে সমাবেশ করছে।

তিনি আরও বলেন, আজকে শেখ হাসিনার প্রসংশা সারা বিশ্বে। যে বিশ্ব ব্যাংক পদ্মা সেতুর অর্থ বন্ধ করেছিল, সেই বিশ্ব ব্যাংকের সভাপতির হাতে নিজেদের টাকায় তৈরি পদ্মা সেতুর স্ক্রেচ তুলে দিয়েছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। এটাই বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। তাই বলতে চাই, যদি রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা দেশ ও সাধারণ জনগণের বিরুদ্ধে জামাত-বিএনপি ষড়যন্ত্র করে তাহলে তাদেরকে রাজপথেই কঠোরভাবেই প্রতিহত করবে যুবলীগ।

এসময় আরও বক্তব্য দেন- যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মো. রফিকুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার মৃনাল কান্তি জোদ্দার, তাজউদ্দিন আহমেদ, মো. জসিম উদ্দিন মাতুব্বর, মো. আনোয়ার হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মুতিউর রহমান বাদশা, সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান চপল, ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন রানা, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক মো. ইসমাইল হোসেন, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এইচ এম রেজাউল করিম রেজা, কেন্দ্রীয় যুবলীগের  প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, দপ্তর সম্পাদক মো. মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মো. সাদ্দাম হোসেন পাভেল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক বিপ্লব মুস্তাফিজ, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মীর মো. মহিউদ্দিন, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. হেমায়েত উদ্দিন মোল্লা, ধর্ম সম্পাদক মাওলানা মো. খলিলুর রহমান সরদার, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মুক্তা আক্তার, উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ নবীরুজ্জামান বাবু, উপ-শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার সম্পাদক কাজী খালিদ আল মাহমুদ টুকু, উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক সফেদ আশফাক আকন্দ তুহিন, উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফজলে রাব্বী স্মরণ, উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শামছুল ইসলাম পাটোয়ারী, উপ-কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মোল্লা রওশন জামির রানা, উপ-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. গোলাম কিবরিয়া শামীম, উপ-ধর্ম সম্পাদক হরে কৃষ্ণ বৈদ্যসহ কেন্দ্রীয় মহানগর ও বিভিন্ন ওয়ার্ড যুবলীগের নেতৃবৃন্দ।

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক