বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ: গয়েশ্বর-টুকুসহ ১০ জনের আগাম জামিন

বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষ: গয়েশ্বর-টুকুসহ ১০ জনের আগাম জামিন

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর ধানমন্ডিতে সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি নেতা বাবু গয়েশ্বরচন্দ্র রায়, সুলতান সালাউদ্দিন টুকুসহ ১০ জনকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি আমিনুল ইসলামের সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

ছয় সপ্তাহের মধ্যে জামিন প্রাপ্তদের ঢাকা মেট্রোপলিটন দায়রা জজ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইতে হবে। এর আগে মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি আয়োজিত পদযাত্রা থেকে ফেরার সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়।

ঘটনাস্থল থেকে ২৭ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ‌। এ ঘটনায় ধানমন্ডি ও নিউমার্কেট থানায় দুটি মামলা দায়ের করে পুলিশ।

এ মামলার এজাহারে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি এ কে এম ফজলুল হক মিলন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূঁইয়া, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মীর সরফত আলী সপু, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার নাসির উদ্দীন অসীম, সাবেক ভারপ্রাপ্ত দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী, জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকার, যুবদলের সদস্য আবুল খায়ের লিটনসহ ৪৬ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে ধানমন্ডিতে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে পণ্ড হয়ে যায় ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির পদযাত্রা কর্মসূচি। দুপুর ২টায় ধানমন্ডিতে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজের সামনে থেকে এ পদযাত্রা শুরু হয়। পদযাত্রা সাত মসজিদ রোড, রাইফেল স্কয়ার, ঢাকা সিটি কলেজ, সায়েন্সল্যাব মোড়, বাটা সিগন্যাল ও কাঁটাবন মসজিদের সামনে গিয়ে শেষ হওয়ার কথা ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেল ৪টার কিছু আগে পদযাত্রা নিয়ে নেতাকর্মীরা সিটি কলেজের সামনে পৌঁছালে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ শুরু হয়।

উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অবজ্ঞা, গায়েবি মামলায় নির্বিচারে গ্রেফতার, মিথ্যা মামলা ও পুলিশি হয়রানি, দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি, লোডশেডিং, সরকারের দুর্নীতির প্রতিবাদে এ কর্মসূচি দিয়েছিল বিএনপি। সংঘর্ষ চলাকালে বিএনপি নেতাকর্মীরা বিআরটিসি বাসে আগুন দিয়ে বেশকিছু গাড়ি ভাঙচুর করেন। এছাড়া ধানমন্ডি ৩ নম্বর ক্রসিং রোডের পুলিশবক্স ভাঙচুর করেন।

news24bd.tvতৌহিদ

পাঠকপ্রিয়