যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নীতি দেশের ১৭ কোটি মানুষের জন্য লজ্জার: খাদ্যমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নীতি দেশের ১৭ কোটি মানুষের জন্য লজ্জার: খাদ্যমন্ত্রী

নওগাঁ প্রতিনিধি:

যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নীতি এ দেশের ১৭ কোটি মানুষের জন্য লজ্জার বলে মন্তব্য করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।  

আজ রোববার দুপুরে নওগাঁর পোরশায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জুলিও কুরিও শান্তি পদক প্রাপ্তির ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে পোরশা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।  

বিএনপির সমালোচনা করে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা নীতি এ দেশের ১৭ কোটি মানুষের জন্য লজ্জার।

অথচ বিএনপি এটা নিয়ে খুশি হয়েছে। কারণ তারা এ দেশের মানুষের জন্য রাজনীতি করে না। তাদের লক্ষ্য যে কোনো মূল্যে ক্ষমতা যাওয়া।  
অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ তুলে ধরে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তার বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের সকল পর্যায়েই শোষিত ও বঞ্চিত মানুষের পক্ষে থেকেছেন।
তিনি ছিলেন শান্তির প্রতীক। বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক, মানবিক ও শান্তির দর্শন নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।  

দেশের বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেশের অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরতে গিয়ে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, এমন কোন খাত নেই যেখানে প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য পৌঁছায়নি। কমিউনিটি ক্লিনিক গরিব মানুষের চিকিৎসাসেবার জন্য তৈরি করে শেখ হাসিনার সরকার। বিএনপি ২০০১ ক্ষমতায় এসে সেই কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করেছিল। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কমিউনিটি ক্লিনিক এখন বিশ্বে মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।  

দেশের খাদ্য সংকটের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কৃষকবান্ধব সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে দেশে খাদ্যশষ্যের বাম্পার ফলন হয়েছে। এদেশে খাদ্য সংকট হবে না। কৃষকের জন্য সরকার ভর্তুকি মূল্যে সার দিচ্ছে। বিনামূল্যে বীজ ও কৃষি উপকরণ দিচ্ছে। কৃষক তার ফসলের ন্যায্য মূল্যে পাচ্ছে। অথচ বিএনপির আমলে সার চেয়ে কৃষক গুলি খেয়ে প্রাণ গিতে হয়েছিল ১৯ জন কৃষককে।  

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালমা আক্তারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য মঞ্জুর মোর্শে, পোরশা উপেজলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মঞ্জুর মোর্শেদ চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, পোরশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।  

news24bd.tv/কামরুল

পাঠকপ্রিয়