সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ২৪ মিনিট আগে

নগ্ন হলেন সেরেনা! (ভিডিও)

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

 নগ্ন হলেন সেরেনা! (ভিডিও)

স্তন ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে নগ্ন (টপলেস) হলেন টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস। এ ব্যাপারে তিনি একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন। ভিডিওতে দেখা গেছে দুহাত দিয়ে নিজের বুক স্পর্শ করে রয়েছেন সেরেনা। সেই সঙ্গে গান গাইছেন ‘আই টাচ মাইসেল্ফ’। উদ্দেশ্য একটাই, স্তন ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা বাড়ানো।

ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে অক্টোবর মাসকে বেছে নেওয়া হয়। এই মাসে স্তন ক্যান্সার নিয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হয়। তবে এবার অক্টোবরের আগেই স্তন ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করতে বিশেষ উদ্যোগ নিলেন টেনিস তারকা সেরেনা উইলিয়ামস।

চিকিৎসকরা জানান, সাধারণত স্তন ক্যান্সার হয়েছে কিনা তা বোঝার অন্যতম উপায় নিজেই নিজের স্তন নিয়মিত পরীক্ষা করা। প্রত্যেক নারী সুস্থ থাকতে এ বিষয়টি পরীক্ষা করে দেখতে পারেন।

কারণ, স্তন ক্যান্সার প্রথম পর্যায়ে ধরা পড়লে তা চিকিৎসায় ভালো করা সম্ভব। তাই এ বিষয়ে প্রথম থেকে সচেতন হলে বিষয়টি মারণ রোগে পরিণত হওয়ার আগেই আটকে দেওয়া যায়।

এ বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করতে নগ্ন হয়ে নিজের স্তন স্পর্শ করে ‘আই টাচ মাইসেল্ফ’ গান গেয়েছেন সেরেনা উইলিয়মস।

৯ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে ২৩ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম বিজয়ী টেনিস তারকা সেরেনাকে গাইতে শোনা যাচ্ছে, ‘I love myself, I want you love me,’ । ভিডিওটি  নিজের সোশ্যাল সাইটে শেয়ার করেছেন সেরানা।

তিনি লিখেছেন, ‘এই গানটির ভিডিও শ্যুট করতে আমার অস্বস্তি হয়েছে। তবে বিশ্বের নারীদের স্বার্থে আমি এটা করেছি। স্তন ক্যান্সার নিয়ে সকলকে সচেতন করাই আমার উদ্দেশ্য।

ব্রেস্ট ক্যান্সার নেটওয়ার্ক অস্ট্রেলিয়ার তরফে এই ভিডিওটি তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হয়। ২০১৪ সালে প্রথম ব্রেস্ট ক্যান্সার নেটওয়ার্ক অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে ‘আই টাচ মাইসেল্ফ’ প্রকল্প নেওয়া হয়। তারপর থেকেই প্রত্যেক বছরই এই উদ্যোগ নেওয়া হয়ে আসছে। ‘আই টাচ মাইসেল্প’ গানটি যিনি প্রথম গেয়েছিলেন সেই ক্রিসি অ্যাম্পলেট ২০১৩ সালে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তারপর থেকে তাঁর এই গানকেই স্তন ক্যান্সার নিয়ে সচেতনতা প্রসারে ব্যবহার করা হচ্ছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য