টাইটানিক দেখতে গিয়ে নিখোঁজ ট্যুরিস্ট সাবমেরিন

সংগৃহীত ছবি

টাইটানিক দেখতে গিয়ে নিখোঁজ ট্যুরিস্ট সাবমেরিন

অনলাইন ডেস্ক

টাইটানিকের ধ্বংসাবশেষ দেখতে পর্যটকদের সমুদ্রের তলদেশে নিয়ে যাওয়ার কাজে ব্যবহৃত একটি ট্যুরিস্ট সাবমেরিন নিখোঁজ হয়েছে। আটলান্টিক মহাসাগরে নিখোঁজ হওয়ার পর পরই ওই সাবমেরিনটির সন্ধানে তল্লাশি ও উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে। সোমবারের পাঁচজন যাত্রী নিয়ে সাবমেরিনটি নিখোঁজ হয় বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

মার্কিন কোস্ট গার্ড জানিয়েছে, আটলান্টিকের নিচে যাওয়ার ১ ঘণ্টা ৪৫ মিনিট পর এই ছোট সাবমেরিনটির সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

ট্যুরিস্ট সাবমেরিনটির মালিক ট্যুর ফার্ম ওশানগেট জানিয়েছে, এতে থাকা পাঁচ যাত্রীকে উদ্ধারে সব ধরনের বিকল্প অনুসন্ধান করা হচ্ছে।

টাইটানিকের ধ্বংসাবশেষ দেখতে অর্থের বিনিময়ে কিছু ছোট ছোট ডুবোযান পর্যটক ও বিশেষজ্ঞদের আটলান্টিকের তলদেশে নিয়ে যায়। আট দিনের এই ভ্রমণের জন্য পর্যটকদের খরচ করতে হয় আড়াই হাজার ডলার।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সরকারি সংস্থা, মার্কিন ও কানাডার নৌবাহিনী এবং বাণিজ্যিক গভীর সমুদ্র সংস্থাগুলো উদ্ধার অভিযানে সহায়তা করছে।

বিবিসি বলছে, ওশানগেট কোম্পানির এ ট্যুরিস্ট সাবমেরিনটিতে পাঁচজন যাত্রী ভ্রমণ করতে পারেন। এতে চার দিনের জরুরি অক্সিজেন থাকে।

সোমবার বিকেলে মার্কিন কোস্ট গার্ডের রিয়ার অ্যাডমিরাল জন মাগার একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘আমরা ধারণা করছি এ মুহূর্তে ৭০ থেকে ৯৬ ঘণ্টা সময় (অক্সিজেন) আছে। ’ তিনি আরও বলেন, দুটি বিমান, একটি সাবমেরিন ডুবোযানটির অনুসন্ধানে কাজ করছে।

news24bd/ARH