যশোরে সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ৭: বাসচালকের আত্মসমর্পণ

যশোরে সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ৭: বাসচালকের আত্মসমর্পণ

অনলাইন ডেস্ক

যশোরে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় ইজিবাইকের সাত যাত্রী নিহতের ঘটনায় বাসটির চালক মিজানুর রহমান (৪০) পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। শনিবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে তিনি কোতোয়ালি থানা-পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। যশোর জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা এই আত্মসমর্পণে মধ্যস্থতা করেন বলে জানা গেছে।

মিজানুর রহমান যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার পাঠান পাইকপাড়া গ্রামের নজরুল শেখের ছেলে।

যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সড়ক পরিবহন আইনে আজ নিহত ব্যক্তিদের স্বজন ছোটন হোসেন বাদী হয়ে দায়ী বাসটির অজ্ঞাতনামা চালককে আসামি করে একটি মামলা করেন। ওই মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে। জব্দ করা বাসটি হাইওয়ে পুলিশের বারোবাজার থানার জিম্মায় রয়েছে। আসামিকেও হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

পুলিশ ও নিহত ব্যক্তিদের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার যাদবপুর গ্রামের বাসিন্দা মহিমা খাতুন তাঁর পরিবারের এক সদস্যকে চিকিৎসক দেখানোর জন্য ইজিবাইকে চড়ে শহরের দিকে যাচ্ছিলেন। ইজিবাইকটি যশোর-মাগুরা মহাসড়কের লেবুতলা এলাকায় পৌঁছালে মাগুরাগামী রয়েল ডিলাক্স নামের একটি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ইজিবাইকটি বাসের নিচে পড়ে দুমড়েমুচড়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন বাসটি উল্টে ইজিবাইকে থাকা যাত্রীদের উদ্ধার করেন। এর মধ্যে ইজিবাইকে থাকা ছয় যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। গুরুতর অবস্থায় তিনজনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিলে আরও একজনের মৃত্যু হয়। অপর দুজনের মধ্যে একজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের আজ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।  

news24bd.tv/আইএএম