শিক্ষার্থীকে চাপা দিয়ে পালাতে গিয়ে শিশুকে পিষে মারল বাস

শিক্ষার্থীকে চাপা দিয়ে পালাতে গিয়ে শিশুকে পিষে মারল বাস

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর রামপুরায় রাস্তা পারাপারের সময় ভিক্টর ক্ল্যাসিক বাসের ধাক্কায় জাহিদ হাসান (২৪) নামে এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। বাসটি ওই শিক্ষার্থীকে ধাক্কা দিয়ে তরিঘরি করে হাতিরঝিল সড়কে ঢুকে পড়ে সেখানেও এক শিশুকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুটির মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুলাই) বিকেল পৌনে ৫টার দিকে রামপুরা ব্রিজ ও হাতিরঝিল সড়কে এ কাণ্ড ঘটায় ভিক্টর পরিবহনের ওই বাসটি।

 

নিহত জাহিদ হাসানের বড় ভাই ইমরান বলেন, আমার ভাই চীনের চীনের বেসরকারি নর্থ ইলেকট্রনিক পাওয়ার ইউনিভার্সিটিতে লেখাপড়া করে। সম্প্রতি সে দেশে এসেছে। রামপুরা ব্রিজের সামনে রাস্তা পারাপারের সময় ভিক্টর ক্ল্যাসিক পরিবহনের একটি বাস আমার ভাইকে ধাক্কা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, আমরা ডেমরা এলাকায় থাকি। আমাদের বাড়ি মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানার ভবেরচর গ্রামে। বাসটি পুলিশ হেফাজতে আছে।  

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, মরদেহটি হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে। আমরা বিষয়টি হাতিরঝিল থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের জানিয়েছি।

এদিকে, রামপুরা ব্রিজের সামনে ওই শিক্ষার্থীকে চাপা দেওয়ার পর দ্রুত পালিয়ে যেতে হাতিরঝিল সড়কে ঢুকে পড়ে বাসটি। সেসময় সড়কে থাকা এক ভিক্ষুক নারীর শিশুকে চাপা দেয় ওই বাস। এতে ঘটনাস্থলেই শিশুটি নিহত হয়।  

হাতিরঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজানুর রহমান বলেন, রামপুরা ব্রিজে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রকে ভিক্টর ক্ল্যাসিক পরিবহনের একটি বাস ধাক্কা দেয়। এরপর বাসটি হাতিরঝিলের রাস্তায় ঢুকে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় বাসটি ৩-৪ বছরের এক শিশুকেও চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ওই শিশুটি মারা যায়। পরে আমরা জানতে পারি আহত ওই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী ঢাকা মেডিকেলে মারা গেছেন। একই বাস দুটি ঘটনা ঘটিয়েছে এবং দুটি প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।

তিনি বলেন, ভিক্টর ক্ল্যাসিক পরিবহনের চালক পালিয়ে গেলেও বাসের হেলপারকে আটক ও বাসটিকে জব্দ করা হয়েছে।

news24bd.tv/তৌহিদ

পাঠকপ্রিয়