ক্ষমতা হস্তান্তরের ঘোষণা পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীর 

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ

ক্ষমতা হস্তান্তরের ঘোষণা পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীর 

অনলাইন ডেস্ক

আগামী মাসে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ। রোববার (১৬ জুলাই) লাহোরে সরকারি এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করার সময় মেয়াদ শেষের আগেই ক্ষমতা হস্তান্তরের এই ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

২০১৮ সালের ১২ আগস্ট পাকিস্তানের তৎকালীন পিটিআই নেতৃত্বাধীন সরকারের অধীনে পাঁচ বছরের মেয়াদের সংসদের যাত্রা শুরু হয়েছিল। পিটিআইয়ের সরকারের পতনের পর প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ নেতৃত্বাধীন ক্ষমতাসীন জোটের অধীনে সেই সংসদের মেয়াদ সম্পন্ন হতে যাচ্ছে আগামী মাসে।

লাহোরে দেওয়া বক্তৃতায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে তত্ত্বাবধায়ক কর্তৃপক্ষের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করার ইঙ্গিত দিয়েছেন। শিয়ালকোটে দেওয়া বক্তৃতায় তিনি বলেছেন, ‘আমাদের সরকার আগামী মাসে তার মেয়াদ পূর্ণ করবে। আমরা আশা করছি, মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই বিদায় নেব এবং নতুন অন্তর্বর্তীকালীন সরকার দায়িত্ব নেবে। ’

শেহবাজ শরিফ বলেছেন, আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে সুযোগ পেলে পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) নেতারা এবং দলের সর্বোচ্চ নেতা নওয়াজ শরিফ দেশকে উন্নতি ও সমৃদ্ধির পথে নিয়ে মানুষের ‘ভাগ্য পরিবর্তন’ করবেন।

পাকিস্তানের এই প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা আসন্ন নির্বাচনে জনগণের ম্যান্ডেটকে মেনে নেবেন। তবে পিএমএল-এন সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে পিটিআইয়ের চার বছরের কর্মকাণ্ডের তথ্য খতিয়ে দেখে দেশের জনগণকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বড় ভাই নওয়াজ শরিফের রাষ্ট্র পরিচালনার গুণাবলীর প্রশংসা করার সময় দুঃখ প্রকাশ করে শেহবাজ শরিফ বলেন, ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে চলে আসা লোডশেডিংয়ের অবসান, তরুণদের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ ও ঋণ প্রদান, বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের চীন পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডোর (সিপিইসি) স্থাপন এবং বিদ্যুৎ ও সড়ক অবকাঠামো প্রকল্প নির্মাণ করার পরও নওয়াজকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করা হয়েছিল।

তিনি বলেন, অন্যদিকে পিএমএল-এন নেতৃত্ব ও বিরোধীদের নিয়ে ইমরান খান ভীত ছিলেন। তিনি ভুয়া মামলা দিয়ে তাদের জেলে ঢোকাতে ব্যস্ত ছিলেন। পিটিআইয়ের প্রধান ইমরান খান পিএমএল-এন সরকারের নেওয়া ‘বৈপ্লবিক পদক্ষেপগুলো’ মেনে নিতে পারেননি।

সূত্র: ডন

news24bd.tv/আইএএম

পাঠকপ্রিয়