চাকরিচ্যুত সেই ডা. প্রিয়াংকার বক্তব্য ভাইরাল 

সংগৃহীত ছবি

চাকরিচ্যুত সেই ডা. প্রিয়াংকার বক্তব্য ভাইরাল 

অনলাইন ডেস্ক

তারুণ্যের সমাবেশে বক্তৃতা করেছেন শেরপুর-১ আসনে ধানের শীষ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা ডা. সানসিলা জেবরিন প্রিয়াংকা। ২০১৮ সালের নির্বাচনের সর্বকনিষ্ঠ এই প্রার্থী বলেছেন, আজকে আমরা সব তরুণ একসঙ্গে হয়েছি। আজকে তরুণরা বেকার, হা-হুতাশের মধ্যে আছে। কেউ চাকরি পাচ্ছে না।

আবার কেউ চাকরি পেলেও প্রমোশন পায় না। শুধু তাই নয়, অবৈধ সরকারের একচোখা নীতির কারণে আমরা কেউ বিসিএস করতে পারছি না। বিএনপি তিন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন এই সমাবেশ ডাকে।  

শনিবার দুপুরে বিএনপির তিন সংগঠনের উদ্যোগে রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তারুণ্যের সমাবেশে এসব কথা বলেন।

 

প্রিয়াংকা আরও বলেন, আমি ২০১৮ সালে শেরপুর-১ আসনে ধানের শীষের প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেছিলাম। এটিই ছিল আমার দোষ। এটিই ছিল আমার পাপ। এটির কারণে আমার গাড়িবহরে হামলা করা হয়। হুমকি-ধমকি দেওয়া হয়েছে।

অবশেষ ২০২৩ সালে অবৈধ সরকারের গোয়েন্দা বাহিনী রুমে আবদ্ধ করে আমার ব্যক্তিগত মোবাইল ফোন চেক করে এবং সেই ফোনটি নিয়ে নেয়। এর তিন দিন পরেই আমার কর্মস্থল থেকে জোরপূর্বক চাকরিচ্যুত করা হয়।

পরে অবশ্য ডা. সানসিলা জেবরিন প্রিয়াংকার এ বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়।  

news24bd.tv/আইএএম

পাঠকপ্রিয়