জাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রীদের অবস্থান

জাবি উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রীদের অবস্থান

অনলাইন ডেস্ক

আবাসিক হলে আসন নিশ্চিতের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক নূরুল আলমের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রীরা।

রোববার ২৩ জুলাই) রাত সোয়া আটটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের চৌরঙ্গী এলাকা থেকে ছাত্রীরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে যান। পরে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ৬৫ শিক্ষার্থী অবস্থান নেন। আগামী সাত দিনের মধ্যে হলে আসন নিশ্চিতের দাবি জানান তারা।

বেগম খালেদা জিয়া হলের প্রথম বর্ষের আবাসিক শিক্ষার্থী সোহাগী সামিয়া বলেন, তারা প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা এক কক্ষে ৯৫ জন থাকেন। ওই কক্ষে কোনো খাট নেই। তারা কক্ষের ফ্লোরে বিছানা বিছিয়ে থাকেন। ওই কক্ষে ১৫ থেকে ১৭টি ফ্যান আছে, যা তাদের জন্য অপ্রতুল।

ওই কক্ষে কোনো ধরনের পড়ার পরিবেশও নেই।

দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে বলেন, তারা এক বছরের বেশি গণরুমে থাকেন। তবে তার বন্ধুরা যারা ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠনের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত তারা ইতিমধ্যে হলে আসন পেয়েছেন।

শেখা হাসিনা হলের একাধিক শিক্ষার্থী বলেন, ক্ষমতাসীন দলের রাজনীতি করায় গণরুমে থাকা অনেকে সিট পেয়েছেন। অথচ সাধারণ শিক্ষার্থীরা এক বছরের বেশি সময় হলে থেকেও আসনের ব্যবস্থা হয়নি।

শেখ হাসিনা হলের আবাসিক শিক্ষার্থী মহসীনা রহমান মীম বলেন, তারা প্রথম বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষা গণরুমে থেকে দিয়েছেন। কয়েকদিন পর তাদের দ্বিতীয় বর্ষেরও ফাইনাল পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। গণরুমে পড়ার কোনো পরিবেশ না থাকায় তারা পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিতে পারছেন না। তাদের একটাই দাবি আগামী সাত দিনের মধ্যে হলের আসনের ব্যবস্থা করতে হবে।

এ বিষয়ে সহকারী প্রক্টর মোহাম্মদ রুবেল বলেন, 'নতুন হলের কাজ শেষ হলেই তাদের আসনের ব্যবস্থা করা হবে। আমরা নিজেরাও চাই না শিক্ষার্থীরা গণরুমে অবস্থান করুক। নতুন হলের কাজ শেষ হলেও কর্মচারী নিয়োগ না হওয়ার কারণে তাদের হলে উঠানো যাচ্ছে না। প্রশাসন সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে হল উদ্বোধন করার। '

news24bd.tv/আইএএম

এই রকম আরও টপিক