জাতিসংঘের এফএও সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন

সংগৃহীত ছবি

জাতিসংঘের এফএও সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন

অনলাইন ডেস্ক

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধু কর্নার-‘বাংলাদেশ-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কক্ষ’ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (জুলাই ২৪) স্থানীয় সময় বিকেলে রোমে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার সদর দপ্তরে ডি-ভবনের দ্বিতীয় ফ্লোরে এ কক্ষটির উদ্বোধন করেন তিনি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) মহাপরিচালক কিউ দোঙ্গিউ।

ক্ষুধা দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখে এবং বাংলাদেশের কৃষি খাতে ‘সবুজ বিপ্লবের’ সূচনা করা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এ কক্ষটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

‘বাংলাদেশ-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কক্ষ’ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, তার দেশ জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার সদর দপ্তরের ভেতরে এক খণ্ড বাংলাদেশ পেয়েছে।

কক্ষটি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আন্তরিক সহযোগিতার জন্য এফএও মহাপরিচালক ও তার দলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বঙ্গবন্ধু কন্যা।

তিনি বলেন, ১৯৭৩ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশনায় বাংলাদেশ জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার সদস্য হয়।

বাংলাদেশের জনগণকে শোষণ, দারিদ্র ও ক্ষুধামুক্ত করা বঙ্গবন্ধুর সারা জীবনের সংগ্রাম ছিল উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাই।

 

বাংলাদেশ এবং জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার মধ্যেকার অংশীদারিত্বের ৫০ বছরের কথা উল্লেখ করেন তিনি।

ক্ষুধা ও অপুষ্টি মোকাবিলায় বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি লাভ করেছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সব মানুষকে ক্ষুধা ও দারিদ্র থেকে মুক্ত করা আমার জীবনের উদ্দেশ্য। বাংলাদেশ ইতোমধ্যে এ লক্ষ্য অর্জনের কাছাকাছি পৌঁছেছে।

আন্তর্জাতিক প্রতিনিধিদের বাংলাদেশ-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কক্ষে প্রদর্শিত বাংলাদেশের অর্জনগুলো দেখার আহ্বান জানান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, আশা করি খাদ্য নিরাপত্তা ও টেকসই অগ্রাধিকার দেওয়ার ক্ষেত্রে সারা বিশ্ব বাংলাদেশের উদাহরণ থেকে অনুপ্রেরণা নেবে।

‘বাংলাদেশ-বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব’ কক্ষটিতে বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে ২০২০-২০২১ সালে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপনের সময় গিনেস বুকে রেকর্ড করা ধানক্ষেতে চিত্রিত ‘শস্যচিত্রে বঙ্গবন্ধু’ শিল্প কর্মটির একটি ছবি প্রদর্শন করা হয়েছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান প্রমুখ।

news24bd.tv/আইএএম

পাঠকপ্রিয়