তারা সুপরিকল্পিতভাবে সহিংসতা ছড়িয়ে দিতে চায়: ফখরুল

তারা সুপরিকল্পিতভাবে সহিংসতা ছড়িয়ে দিতে চায়: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে বিদায় করে যোগ্য-দক্ষ, দেশপ্রেমিক এবং মেধাবী মানুষদের নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে।

আজ মঙ্গলবার (২৫ জুলাই) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটে ইউনাইটেড লইয়ার্স ফ্রন্ট আয়োজিত আইনজীবী সমাবেশে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সরকারকে পদত্যাগ করতে হবে, চলমান জাতীয় সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে এবং নির্দলীয়-নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা করে সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে হবে। যা এ ডুগডুগি বাজানো নির্বাচন কমিশনকে দিয়ে হবে না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, জনতার শক্তির কাছে কোনো শক্তি টিকে থাকতে পারে না। বিভিন্ন দেশে মানুষ অধিকার আদায় করছে, এদেশের মানুষও সফল হবে।

সরকার জনগণকে বোকা বানিয়ে ও ভয় দেখিয়ে সবকিছু ধ্বংস করে দিয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএনপির গণতান্ত্রিক আন্দোলন রুখে দেওয়ার জন্য সরকারি দল নতুন চক্রান্ত শুরু করেছে মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিএনপিকে জড়িয়ে অস্ত্র আমদানির মিথ্যাচার শুরু করছেন।

তারা সুপরিকল্পিতভাবে দেশে সহিংসতা ছড়িয়ে দিতে চায়। জনসমর্থন হারিয়ে তারা জনগণের সাথে সহিংসতা করতে চায়।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, বিদেশ থেকে সরকারি দল নিজেরাই অস্ত্র এনে তা যদি জনগণের ওপর প্রয়োগ করে, তার দায়দায়িত্ব তাদেরই নিতে হবে বলে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আগামী ২৭ তারিখে ঢাকায় আমরা শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করব। কোনো চক্রান্ত করে এ মহাসমাবেশ নস্যাৎ করা যাবে না। প্রশাসনের কাছে স্পষ্ট বার্তা দিতে চাই, আমাদের শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করতে দেবেন। অন্যথায় সব দায়ভার আপনাদের নিতে হবে। ’

news24bd.tvতৌহিদ

এই রকম আরও টপিক