শেষমেশ কি পিছিয়ে যাবে অক্ষয়ের ‘ওএমজি ২’-এর মুক্তি? 

সংগৃহীত ছবি

শেষমেশ কি পিছিয়ে যাবে অক্ষয়ের ‘ওএমজি ২’-এর মুক্তি? 

অনলাইন ডেস্ক

আগামী ১১ অগস্ট মুক্তি পেতে চলেছে বলিউড অভিনেতা অক্ষয় কুমারের নতুন ছবি ‘ওএমজি ২’। তার আগেই সেন্সর বোর্ডের জাঁতাকলে ছবি। এখনো মিলল না সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র, তবে শেষমেশ কি পিছিয়ে যাবে ‘ওএমজি ২’-এর মুক্তি?

প্রথম ছবি মুক্তির প্রায় এক দশক পরে আসতে চলেছে তার সিক্যুয়েল। ২০১২ সালে মুক্তি পেয়েছিল অক্ষয় কুমারের ছবি ‘ওএমজি: ওহ মাই গড’।

তার ১১ বছর পরে মুক্তি পেতে চলেছে দ্বিতীয় ছবি ‘ওএমজি২’।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ছবির প্রথম ঝলক। আগামী ১১ অগস্ট মুক্তি পাওয়ার কথা অক্ষয়ের ছবির। তবে তার আগেই বড়সড় হোঁচট খেল ‘ওএমজি ২’।

ছবি মুক্তির আর ২০ দিনও বাকি নেই। এ দিকে ছবির উপর থেকে স্থগিতাদেশ এখনও তোলেনি সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশন তথা সেন্সর বোর্ড। শোনা যাচ্ছে, সব দিক ভেবেচিন্তে, পুঙ্খানুপুঙ্খ বিচার-বিশ্লেষণ না করে ছবিকে ছাড়পত্র দিতে নারাজ সেন্সর বোর্ড।

কেন এই অতিরিক্ত সতর্কতা? ‘আদিপুরুষ’ ছবি মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই ছবি নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। ছবিতে চরিত্রদের সাজপোশাক থেকে শুরু করে সংলাপ— সব নিয়েই অসন্তোষ তৈরি হয় দর্শকের মধ্যে। তার উপরে যে হেতু ‘আদিপুরুষ’ হিন্দু মহাকাব্য রামায়ণের আধুনিক সংস্করণ, তাই সেই অসন্তোষ বিক্ষোভে পরিণত হতে খুব একটা সময় লাগেনি। এমন গুণগত মানের ছবিতে ছাড়পত্র দেওয়া নিয়ে প্রবল সমালোচনা ও রোষের মুখে পড়তে হয় সেন্সর বোর্ডকেও। শেষমেশ ছবির কিছু সংলাপ বদল করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হয়। তাতেও লাভ বিশেষ হয়নি। বরং সাধারণ দর্শকের সামনে মুখ পুড়েছে সেন্সর বোর্ডেরই। ‘আদিপুরুষ’ নিয়ে এমন অভিজ্ঞতার পর আর তার পুনরাবৃত্তি চায় না সেন্সর বোর্ড। তাই ‘ওএমজি ২’-এর মতো একটি ছবিকে ছাড়পত্র দেওয়ার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করছে বোর্ড।

তবে সেন্সর বোর্ডের এই সতর্কতার মাশুল গুনতে হচ্ছে ‘ওএমজি ২’ ছবির নির্মাতাদের। এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র ছবির প্রথম ঝলকই মুক্তি পেয়েছে। ছবির প্রচারের জন্য হাতে দিনও বেশি নেই। এখনও পর্যন্ত সিবিএফসির ছাড়পত্র না পাওয়ায় ছবির মুক্তি পিছনোর কথা ভাবছেন নির্মাতারা।

ঘনিষ্ঠ এক সূত্রের খবর, আগামী সোমবার পর্যন্ত সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্রের জন্য অপেক্ষা করতে রাজি ‘ওএমজি ২’-এর নির্মাতারা। তার মধ্যেও ছাড়পত্র না মিললে আদৌ ১১ অগস্ট ছবি মুক্তির সম্ভব কি না, তা নিয়ে দোলাচলে রয়েছে গোটা টিম।

শোনা যাচ্ছে, ১০ দিনের প্রচারের পর ছবির ট্রেলার প্রকাশ করার পরিকল্পনা রয়েছে নির্মাতাদের। সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পাওয়ার জন্য নিজের দিক থেকেও সব রকমভাবে উঠেপড়ে লেগেছেন অক্ষয় কুমারও।

‘ওএমজি: ওহ মাই গড’ ছবিতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের চরিত্রে অভিনয় করার পর ‘ওএমজি ২’-তে মহাদেবের ভূমিকায় দেখা যেতে চলেছে অক্ষয়কে। সামাজিক মাধ্যমের পাতায় ইতোমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে সেই লুক।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

news24bd.tv/TR

এই রকম আরও টপিক