এশিয়া কাপের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা যেদিন

সংগৃহীত ছবি

এশিয়া কাপের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা যেদিন

অনলাইন ডেস্ক

হাইব্রিড মডেলেই আগামী ৩০ আগস্ট থেকে মাঠে গড়াচ্ছে এবারের এশিয়া কাপ। দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের এই প্রতিযোগিতাকে সামনে রেখে এরই মধ্যে দল গঠনের কাজ শুরু করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে আগস্টের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুশীলন ক্যাম্প শুরু হবে।

শুক্রবার বিসিবির সূত্র জানিয়েছে, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠেয় ছয় জাতির এই টুর্নামেন্টে ২১ থেকে ২২ সদস্যের একটি স্কোয়াড যাবে।

আগস্টের শুরুর দিকে ছুটি কাটিয়ে দেশে ফিরবেন টাইগারদের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। এরপর আগামী ৬ আগস্টের মধ্যে এশিয়া কাপের জন্য টাইগারদের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করবেন নির্বাচকরা।

এদিকে ওয়ানডে দলপতি তামিম ইকবাল এখন ইনজুরি থেকে পুরোপুরি সেরে না ওঠায় তাকে নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। তাই তার (তামিম) পরিবর্তে বাড়তি একজন ওপেনার ডাক পাওয়ার গুঞ্জন জোরালো হচ্ছে।

এই লড়াইয়ে এগিয়ে থাকছেন রনি তালুকদার ও নাঈম শেখ।

অন্যদিকে দলের সাত নম্বর পজিশন নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। সাম্প্রতিক সময়ে আফিফ হোসেনের ওপর আস্থা রাখা হলেও এর প্রতিদান দিতে ব্যর্থ তিনি। এবার সেই আস্থায় নতুন করে যুক্ত হয়েছেন জাতীয় দল থেকে বাদপড়া সৌম্য সরকার। দৌড়ে আছেন অভিজ্ঞ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও।

জানা গেছে, আনুষ্ঠানিক ক্যাম্প শুরুর আগে একটি ফিটনেস ক্যাম্পের আয়োজন করবে বিসিবি। আগামী ৩১ জুলাই থেকে সেটা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সেখানে জায়গা পেতে পারেন ৩০ জন ক্রিকেটার।

এশিয়া কাপের দ্বিতীয় দিনে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। ৩১ অগাস্ট ‘বি’ গ্রুপের এই ম্যাচে টাইগারদের প্রতিপক্ষ আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা। সেখানে প্রথম ম্যাচ খেলে আগামী ম্যাচের জন্য পাকিস্তানের উদ্দেশ্যে উড়াল দিতে হবে লাল-সবুজদের। আগামী ৩ সেপ্টেম্বর পাকিস্তানের লাহোরে আফগানিস্তানকে মোকাবিলা করবে বাংলাদেশ।

সুপার ফোর নিশ্চিত হলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তারা ‘বি২’ হিসেবে বিবেচিত হবে। সেক্ষেত্রে তারা আগামী ৬ সেপ্টেম্বর সুপার ফোরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ‘এ১’ দলের বিপক্ষে বাংলাদেশ। এরপর আগামী ৯ সেপ্টেম্বর ‘বি১’ ও ১৫ সেপ্টেম্বর ‘এ২’ দলের বিপক্ষে সুপার ফোরের টাইগারদের বাকি দুই ম্যাচ হবে। এই দুই ম্যাচের ভেন্যুই কলম্বো।

পাঠকপ্রিয়