ব্রিকসে বাংলাদেশের যোগদান : যা ভাবছে ভারত

সংগৃহীত ছবি

ব্রিকসে বাংলাদেশের যোগদান : যা ভাবছে ভারত

অনলাইন ডেস্ক

ব্রিকসে বাংলাদেশের যোগদানের বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে ভারত। ব্রিকসের সদস্য সম্প্রসারণের বিষয়ে ভারত বিরোধিতা করছে- এমন কথা গুজব বলে উড়িয়ে দেয়া হয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।

সম্প্রতি এক প্রশ্নের জবাবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেছেন, 'ভারত ব্রিকস-এর সম্প্রসারণের বিরোধিতা করছে এটা গুজব। কারণ ব্রিকসের চেয়ার দক্ষিণ আফ্রিকা পরবর্তী ব্রিকস সম্মেলনে বাংলাদেশকে ব্রিকসে যোগদানের আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

যা বাংলাদেশ গ্রহণ করেছে। আর্জেন্টিনা, সংযুক্ত আরব আমিরাতকেও জোটে যোগদানের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। '

তবে বিবিসি বাংলার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, দিল্লীর অনেক সাবেক কূটনীতিক ব্রিকসে বাংলাদেশের যোগদানের বিষয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। কূটনীতিকদের বরাতে প্রতিবেদনে বলা হয়, জোটে নিশ্চয় নতুন নতুন দেশকে স্বাগত জানানো দরকার – কিন্তু জোটের ভেতরে ‘আঞ্চলিক ভারসাম্য’ যাতে রক্ষিত হয় সেটা দেখাটাও খুব জরুরি বলে মনে করছে ভারত।

তবে অরিন্দম বাগচির দাবি, ব্রিকসের সম্প্রসারণ বিভিন্ন নিয়ম মেনে সংঘটিত হয় এবং এটি সদস্যদের মধ্যে ঐকমত্যের ভিত্তিতে করা হয়। কিন্তু ভারত ব্রিকস সম্প্রসারণের বিরোধিতা করছে এই তথ্য সম্পূর্ণ ভুল।

আরও পড়ুন : বাংলাদেশের নির্বাচনের সিদ্ধান্ত দেশটির সরকার ও জনগণের

বিবিসির প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, নিয়মানুযায়ী বাংলাদেশ অবশ্যই চাইবে চীন ও ভারত উভয়েরই সমর্থন নিয়ে ব্রিকসের অংশ হতে। কিন্তু এই মুহূর্তে বেইজিং ও দিল্লির মধ্যকার সম্পর্কে যে টানাপোড়েন চলছে- তাতে সেটা কতটা সম্ভব তা নিয়েও প্রশ্নচিহ্ন থাকবে।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবারের ব্রিকস সম্মেলনে সশরীরে যোগদান করতে পারছেন না বলে ভারতের একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছে। যদিও এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেননি দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি।

news24bd.tv/FA

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়