জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র বাড়ছে ২ হাজারের বেশি

প্রতীকী ছবি

জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র বাড়ছে ২ হাজারের বেশি

অনলাইন ডেস্ক

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রের খসড়া তালিকায় সাড়ে ৪২ হাজার ভোটকেন্দ্রের তালিকা দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ফলে ২ হাজার ২০০টির বেশি ভোটকেন্দ্র বাড়তে পারে।

বুধবার (১৬ আগস্ট) নির্বাচন কমিশনের ভোটকেন্দ্রের খসড়া তালিকা থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, খসড়া ভোটকেন্দ্রের তালিকা নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে কেন্দ্রীয়ভাবে সমন্বয় করা হয়েছে।

ভোটার সংখ্যা বৃদ্ধি, যোগাযোগ ব্যবস্থা ও স্থানীয়দের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে ভোট কেন্দ্র বাড়ছে। তবে দাবি-আপত্তি নিষ্পত্তি শেষে এই সংখ্যা আরও কম-বেশি হতে পারে।

কর্মকর্তারা আরও জানান, ইসির ১০টি অঞ্চলের মধ্যে কুমিল্লা অঞ্চলে কেন্দ্র বাড়ছে বেশি। এ অঞ্চলে ১০ শতাংশ বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং নির্বাচনে কেন্দ্র হতে পারে ৪ হাজার ৭০০টির মতো।

ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ গণমাধ্যমকে জানান, সেপ্টেম্বরের মধ্যে খসড়া ভোটকেন্দ্রের তালিকা চূড়ান্ত হওয়ার পর আইন-বিধি অনুযায়ী ভোটের অন্তত ২৫ দিন আগে গেজেট প্রকাশ করবে নির্বাচন কমিশন।

জানা গেছে, একাদশের ৪০ হাজার ১৮৩টি কেন্দ্র থেকে বেড়ে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৪২ হাজার ৪০০টির মতো হতে পারে। একাদশ সংসদ নির্বাচনের তুলনায় এবার ভোটকেন্দ্র বাড়ছে দুই হাজারের বেশি।

আর গত নির্বাচনের সময়কার ২ লাখ ৭ হাজার ৩৯৯ থেকে বেড়ে ভোট কক্ষ হতে পারে দুই লাখ ৬১ হাজার ৫০০। এক্ষেত্রে কেন্দ্র বাড়ছে ২৬ শতাংশ। তবে ইসির চূড়ান্ত হিসেবে কিছু কম-বেশি হতে পারে।

বুধবার প্রকাশিত খসড়া কেন্দ্রের উপর দাবি-আপত্তির নেওয়ার শেষ তারিখ ৩১ আগস্ট। দাবি-আপত্তি নিষ্পত্তির শেষ তারিখ ১১ সেপ্টেম্বর। খসড়া ভোটকেন্দ্রের তালিকা চূড়ান্ত হবে ১৭ সেপ্টেম্বর।

প্রসঙ্গত, একাদশ সংসদ নির্বাচনে ১০ কোটি ৪০ লাখেরও বেশি ভোটারের জন্য ৪০ হাজার ১৮৩টি ভোট কেন্দ্র ছিল এবং কেন্দ্রগুলোতে ২ লাখ ৭ হাজার ৩১৯ ভোট কক্ষ ছিল।

দশম সংসদ নির্বাচনে ৯ কোটি ১৯ লাখ ভোটারের জন্য কেন্দ্র ছিল ৩৭ হাজার ৭০৭টি আর ভোটকক্ষ ছিল ১ লাখ ৮৯ হাজার ৭৮টি।

নবম সংসদ নির্বাচনে ৮ কোটি ১০ লাখ ভোটারের জন্য কেন্দ্র ছিল ৩৫ হাজার ২৬৩টি আর ভোট কক্ষ ছিল ১ লাখ ৭৭ হাজার ২৭৭টি।

news24bd.tv/কামরুল

পাঠকপ্রিয়