প্রিগোজিনের জায়গায় আসছেন ‘কুখ্যাত’ এক গোয়েন্দা প্রধান

সংগৃহীত ছবি

প্রিগোজিনের জায়গায় আসছেন ‘কুখ্যাত’ এক গোয়েন্দা প্রধান

অনলাইন ডেস্ক

ইয়েভজেনি প্রিগোঝিনের মৃত্যুর পর তাঁর ভাড়াটে ভাগনার বাহিনীর আফ্রিকা অপারেশন পরিচালনার জন্য জেনারেল আন্দ্রে অ্যাভেরিয়ানভকে নিযুক্ত করা হচ্ছে।  

এ বিষয়ে ফক্স নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাভেরিয়ানভ বর্তমানে রাশিয়ার সামরিক গোয়েন্দা পরিষেবার গোপন অপারেশনের প্রধান হিসাবে কাজ করছেন। তার বিরুদ্ধে রুশ ভিন্নমতাবলম্বীদের হত্যার নির্দেশ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।  

সোমবার রাতে এ বিষয়ে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভাগনার বাহিনীর প্রধান প্রিগোঝিনের মৃত্যুর পর আফ্রিকায় কার্যক্রম পরিচালনার দায়িত্ব অ্যাভেরিয়ানভের হাতে রয়েছে।

 

জানা গেছে, গত জুলাইয়ে রাশিয়া-আফ্রিকা শীর্ষ সম্মেলনের সময় আফ্রিকান নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছিলেন আভেরিয়ানভ। ওই সম্মেলনেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের শাসনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহের পর প্রিগোঝিনকে প্রথমবারের মতো জনসমক্ষে আসতে দেখা গিয়েছিল।  

গত সপ্তাহে প্রিগোঝিনের ব্যক্তিগত জেট বিমান বিধ্বস্ত হলে, তিনিসহ ভাগনার বাহিনীর শীর্ষস্থানীয় কয়েক নেতা নিহত হন। এদের মধ্যে প্রিগোঝিনের সেকেন্ড ইন কমান্ড দিমিত্রি উটকিন এবং ভাগনার বাহিনীর বেসামরিক রসদ সরবরাহ প্রধান ভ্যালেরি চেকালভও ছিলেন।

 

দুই মাস আগে প্রিগোঝিন রাশিয়ার সামরিক নেতৃত্বকে উৎখাতের হুমকি দিলে বিদ্রোহের পর ইউক্রেনে ভাগনার বাহিনীর অভিযান প্রত্যাহার করতে বাধ্য করেছিলেন পুতিন। তবে এই বাহিনী আফ্রিকাতে ব্যাপকভাবে সক্রিয় রয়েছে।  

প্রিগোঝিনের বিমানটি কী কারণে বিধ্বস্ত হয়েছিল তা এখনো অজানা। তবে বিশেষজ্ঞরা বিশ্বাস করেন, পুতিনের নির্দেশেই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে।  

উদ্ধারকারীরা বলেছেন, তাঁরা ধ্বংসাবশেষে ১০টি মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছেন এবং গত রোববার রুশ কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, ডিএনএ বিশ্লেষণ করে নিহতদের মধ্যে প্রিগোঝিন থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।  

বিমান বিধ্বস্তের পর এক মন্তব্যে প্রিগোঝিনকে মন্দ ভাগ্যে লোক বলে আখ্যা দিয়েছিলেন পুতিন।  

এদিকে নতুন নেতৃত্বের বিষয়ে ডব্লিউএসজে-কে আফ্রিকায় থাকা ভাগনার বাহিনীর এক কর্মকর্তা বলেছেন, ‘শিগগির নেতৃত্ব পরিবর্তন ক্ষতিকর হবে। ’ 

তিনি বলেন, ‘এখন প্রথম উদ্বেগের বিষয় হল—একজন উত্তরাধিকারীর নিয়োগের জন্য অপেক্ষা করতে গিয়ে পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণ না হারানো। ’

News24bd.tv/AA

পাঠকপ্রিয়