শিশু ধর্ষণে যাবজ্জীবন ও অপহরণে ১৪ বছরের জেল দুই আসামির 

সংগৃহীত ছবি

শিশু ধর্ষণে যাবজ্জীবন ও অপহরণে ১৪ বছরের জেল দুই আসামির 

নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁর ধামইরহাটে ৮ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে আব্দুস সালাম নামে একজনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও পঞ্চাশ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া জেলার সদর উপজেলার ১২ বছরের নাবালিকা শিশুকে অপহরণের দায়ে সুমন হোসেন নামে আরেকজনকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও পঞ্চাশ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিন মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন একই আদালত।  

মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) বেলা ১১টায় নওগাঁর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মেহেদী হাসান তালুকদার এ রায়গুলো ঘোষণা করেন। সেইসঙ্গে পৃথক ঘটনার জরিমানার টাকাগুলো ওই দুই নারীকে প্রদানের নির্দেশ দেন তিনি।

রাষ্ট্রপক্ষে নিয়োজিত বিশেষ কৌশলী মকবুল হোসেন জানান, জেলার ধামইরহাট উপজেলায় আট বছরের শিশুকে ২০১৯ সালের ৫ জুন ঈদের দিন বেলা ২টার দিকে রুটি ও সেমাই খাওয়নোর কথা বলে আসামি তার ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের অভিযোগে শিশুটির বাবা একই দিন ধামইরহাট থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন। তদন্ত শেষে একমাত্র আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। ২০২২ সালে ৫ জুলাই মামলাটির সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়ে চলতি বছরের ১৪ জুন ১৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়।

গত বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করা হয়। এরপর আজ মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে রায় ঘোষণা করা হলো।  

এদিকে, ২০২২ সালের ১৩ আগস্ট আসামি সুমন জোর করে সিএনজিতে মাদ্রাসার এক নাবালিকা শিশুকে অপহরণ করে। পরে  ২০ আগস্ট নাবালিকার বড় ভাই থানায় মামলা করলে থানা কর্তৃপক্ষ ভিকটিমকে উদ্ধার করে তার ভাইয়ের জিম্মায় দেন। তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। আদালতে ৮ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ রায় দেওয়া হলো।  
news24bd.tv/আইএএম

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়